মাদক পাচাররোধে কঠোর থেকে কঠোরতম হতে হবে : কক্সবাজারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

139260313_889273271828775_1744456379108465330_n-2101201000.jpg

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, মাদক পাচাররোধে আইনশৃংখলা বাহিনীকে কঠোর থেকে কঠোরতম হতে হবে। মাদক কারবারে জড়িতদের সামাজিকভাবে বয়কট করতে হবে। মাদক যুবসমাজকে ধ্বংসের দিকে ধাবিত করছে। মাদকের সাথে জড়িতদের বর্জন করা না গেলে দেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হবে। এদেরকে আইনের আওতায় এনে বিচারের মুখোমুখি করতে হবে।

আজ বুধবার (২০ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায় বিজিবির কক্সবাজার রিজিয়ন সদর দপ্তর প্রশিক্ষণ মাঠে আয়োজিত ‘মাদকদ্রব্য ধ্বংসকরণ’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় পুলিশের আইজিপি ড. বেনজির আহমদ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দিন, বিজিবি কক্সবাজার রিজিয়নের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজেদুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, আমরা সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে যেভাবে জয়ী হয়েছি, সেভাবে মাদকের বিরুদ্ধেও জয়ী হতে হবে। অন্যথায় দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা ব্যাহত হবে।

অনুষ্ঠানে চেকপোষ্টের কার্যক্রমের উপর ডেমো ও রিজিয়নের বিভিন্ন কার্যক্রমের উপর ভিডিও চিত্র প্রদর্শন করা হয় এবং ডগস্কোয়াড দিয়ে তল্লাশী অভিযান দেখানো হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে বিজিবি’র অভিযানে বিভিন্ন সময়ে উদ্ধার হওয়া ৫৩৫ কোটি টাকা মূল্যের মাদকদ্রব্য ধ্বংস করা হয়। এর মধ্যে ১ কোটি ৭৭ লাখ ৭৫ হাজার ৬২৫ পিস ইয়াবা, ৫ হাজার ৭৯৯ বোতল মদ, ৩৩ হাজার ৫৫৫ ক্যান বিয়ার, ১ হাজার ৭৩৬ লিটার চোলাই মদ, ১৫.৭৩২ কেজি গাঁজা, ১৮ হাজার ৭৫০ পাতা সিডিল ট্যাবলেট ও ৫ হাজার পাতা ট্যাবলেট। যার সর্বমোট মূল্য ৫৩৫ কোটি ৪ লাখ ৮১ হাজার ৬১২ টাকা।

পরে কক্সবাজার ঈদগাঁওতে নবনির্মিত থানা উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এর আগে কক্সবাজারের বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্সের আওতাধীন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করেন তিনি। পরিদর্শন শেষে মুজিববর্ষ উপলক্ষে শিক্ষার্থীদের দেয়ালিকা উৎসব ও কারিগরি শিক্ষা ভবন উদ্বোধন করেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top