সাংবাদিকরা ঐক্যবদ্ধ হলে গণমাধ্যমের প্রতি মানুষের আস্থা বাড়বে

received_587961531950048.jpeg

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ
দৈনিক কক্সবাজারবাণী ও জনতারবাণী পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক ফরিদুল মোস্তফা খান বলেছেন, সাংবাদিকদের প্রতি সাধারণ পাঠকদের হারানো আস্থা ফিরিয়ে আনতে নৈতিকভাবে সকলকে আদর্শিক হতে হবে।
দলমত নিজের ভালো লাগা না লাগা সবকিছুর উর্ধ্বে উঠে সঠিক সংবাদ পরিবেশন করলে তা মোটেও অসম্ভব নয়। এছাড়া দেশের স্বার্থে একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে সবাইকে কাজ করতে হবে।

সাংবাদিকতা আহামরি কিছু নয়। সরকারের চলমান উন্নয়ন কর্মকাণ্ড প্রকাশের পাশাপাশি দেশের গরীব অসহায় সাধারণ মানুষের সুখ-দুঃখের খবর তুলে আনতে হবে নিঃস্বার্থভাবে। একই সাথে রাষ্ট্রের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব এবং নীতির প্রশ্নে কারো তাবেদারি করা যাবেনা।
যত বাঁধায় আসুক ন্যায়ের সিদ্ধান্তে অটুত থাকলে এই পেশায় কেউ কাউকে দাবিয়ে রাখতে পেরেছে, এরকম পৃথিবীর কোথাও নজীর নেই।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) রাতে কক্সবাজার সৈকত সন্নিকট এক তারাকা মানের হোটেলে “বাংলাদেশ সাংবাদিক ঐক্য পরিষদ” আয়োজিত “সাংবাদিকদের বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ ও পরিচিতি সভায়” প্রধান অথিতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

সংগঠনের জেলা কমিটির আহবায়ক তরুণ সাংবাদিক মাহবুবুল আলম মিনারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সভায় প্রধান অথিতি আরও বলেন, আমাদের নিজেদের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে দেশব্যাপী সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনা বাড়ছে। দুর্বৃত্তরা সুযোগ নিচ্ছে। এই কারণে সকল গণমাধ্যম মালিকদের উচিৎ সাংবাদিক নিয়োগের ক্ষেত্রে যাচাই-বাছাই করে সৎ, মার্জিত এবং উত্তম চরিত্রের অধিকারীদের এই পেশায় নিয়োগ দেওয়া। তাছাড়া দেশের সকল প্রান্তের সাংবাদিকদের পেশাগত স্বার্থে প্রয়োজনে মৃত্যু আলিঙ্গনের মানসিকতা থাকতে হবে। এ নিয়ে উদার চিন্তা না করলে অদূর ভবিষ্যতে সাংবাদিকদের কেউই মানসম্মান নিয়ে ঠিকতে পারবেন কিনা সন্দেহ রয়েছে।

“ন্যায়ের পক্ষে মরবো মোরা” শ্লোগানে কক্সবাজার জেলায় কর্মরত সকল সাংবাদিকদের একই পতাকাতলে ঐক্যবদ্ধ করার লক্ষ্যে আয়োজিত উক্ত অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যথাক্রমে- সাংবাদিক মুহাম্মদ আলম, দিদারুল আলম জিসান, মতিউল ইসলাম মতি, আমানুল্লাহ আনোয়ার, আবু বক্কর ছিদ্দিক, সৈয়দ হোসাইন শাহিন, ওসমান গণি, আহসান হাবীব, আব্দুর রহমান, সোহেল রানা ও মুহাম্মদ ইমরান উদ্দিন প্রমুখ ছাড়াও জেলায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট, অনলাইন ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার অসংখ্য পেশাদার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় উপস্থিত সাংবাদিকদের বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা, পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনসহ গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন বিষয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়। এতে বক্তারা শীঘ্রই কক্সবাজারের সকল অনলাইন ও দৈনিক পত্রিকার সম্পাদকদেরকে উপদেষ্টা করে পেশাদার সাংবাদিকদের নিয়ে একটি শক্তিশালী জেলা কমিটি এবং পর্যায়ক্রমে উপজেলা কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। আহবায়ক কমিটির নেতৃবৃন্দ আশা করেন এতে সকল ভেদাভেদ ও মনোমালিন্য ভুলে জেলার পেশাদার সব সাংবাদিক ঐক্যবদ্ধ হবেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top