রামুর চাকমারকুলে আন্ত:ধর্মীয় সংলাপ অনুষ্ঠিত

Ramu-News-Pic-22.jpg

আল মাহমুদ ভুট্টো, রামু

রামুতে আন্ত:ধর্মীয় সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) সকালে রামু চাকমারকুল ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে ইউএনডিপি-কক্সবাজার ও ড্যানিডা এর সহযোগিতায় উক্ত সংলাপের আয়োজন করে এ্যালায়েন্স ফর কো-অপারেশন এন্ড লিগ্যাল এইড বাংলাদেশ (একলাব)। সংলাপ অনুষ্ঠানে চাকমারকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম সিকদারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, রামু থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আজমিরুজ্জামান, রামু উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার রনধীর বড়–য়া, চাকমারকুল ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হাসিনা আক্তার, সাংবাদিক ফারুক আহমদ প্রমূখ।
সংলাপে অংশ নেন, কলঘর বাজার জামে মসজিদের খতিব মৌলানা হেলাল উদ্দিন, রামু কেন্দ্রীয় কালী মন্দিরের প্রধান পুরোহিত সুবীর ব্র্যাহ্মন চৌধুরী বাদল এবং ঐতিহাসিক রাংকুট বনাশ্রম বৌদ্ধ বিহারের আবাসিক প্রধান তাপসসেন ভিক্ষু। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইউএনডিপি’র উপজেলা ফ্যাসিলিটেটর বিক্রম কিশোর খিশা।
একেলাব এর সামাজিক সংহতি প্রজেক্টের প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর কেফায়েত উল্লাহর স ালনায় এবং ডেপুটি কো-অর্ডিনেটর শুভজিৎ চৌধুরী, আবদুর জব্বার, মিজানুর রহমান ও ময়না বড়–য়ার সহযোগিতায় অনুষ্ঠানে ধর্মীয় নেতা, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, ছাত্র-ছাত্রীসহ প্রজেক্টের কর্মীরা অংশগ্রহণ করেন।
সভায় বক্তারা বলেন, আবহমানকাল থেকে আমরা বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠী ও বিভিন্ন ধর্মীয় বিশ্বাসী মানুষেরা একসাথে বসবাস করে আসতেছি এ অ লে। কিছু অপ্রত্যাশিত ঘটনার কারনে এ অ লে বসবাসরত জনগোষ্ঠীর মাঝে পারষ্পরিক আস্থার সংকট পরিলক্ষিত হচ্ছে। সকল ধর্মের ধর্মীয় গুরুদেরকে এক মে নিয়ে এসে ধর্মীয় সম্প্রীতির বন্ধন জোরদারে একেলাব এর সামাজিক সংহতি প্রজেক্ট যেভাবে কাজ করছে তা প্রশংসার দাবী রাখে। সামাজিক স্থিতিশীলতা বিষয়ে গণসচেতনতা তৈরি এবং ধর্মীয় উগ্রবাদ ও সহিংসতা দূর করতে সকল ধর্মের বাণী একযোগে প্রচার করতে হবে। অসাম্প্রদায়িক চেতনা লালন করে আমাদেরকে সমাজে সহাবস্থানে থেকে সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top