বাকলিয়ায় ‘পরিকল্পিত হত্যা’কে গণপিটুনির বলে ধামাচাপা দেয়ার অভিযোগ, গ্রেপ্তার ৭

Screenshot_13.jpg

দিসিএম ডেস্ক।।

বাকলিয়া থানার নতুন ফিশারীঘাট এলাকায় চাঁদা না পেয়ে মাছ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে খুন করার অভিযোগে সাতজনকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) সন্ধ্যায় মাছ ব্যবসায়ী আবু তৈয়বকে (৪৫) ডেকে এনে লোহার রড, পাইপ দিয়ে পিটিয়ে এবং কিরিচ, রামদা, বটি দিয়ে কুপিয়ে নিশ্চিত করে আকতার হোসেন প্রকাশ কসাই আকতার নেতৃত্বে ১০/১২ জনের একটি দল। ঘটনার পর রাতেই বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে সাকজনকে আটক করে বাকলিয়া থানা পুলিশ। আজ শনিবার (১৭ অক্টোবর) বাকলিয়া থানায় তৈয়ব হত্যাকাণ্ডে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ( মামলা নং- ৫১)

গ্রেপ্তারকৃত ৭জন হলেন- আকতার হোসেন প্রকাশ কসাই আকতার (৪১), মো. সাইফুদ্দিন (৪০), রায়হান উদ্দিন ওরপে রানা (২৫), আশরাফুল ইসলাম (২৮), মো. সবুজ (৩৫), মো. আবু তাহের ওরপে কালু (২০), ও হাসিনা (২৬)।

নিহত আবু তৈয়ব চট্টগ্রামের কর্ণফুলী থানাধীন শিকলবাহা মাস্টার হাট এলাকার বাসিন্দা। বাকলিয়া থানাধীন নতুন ফিশারী ঘাটস্থ আক্তারের কলোনীতে ভাড়া ঘর নিয়ে পরিবার সহ বসবাস করতেন। তিনি নতুন ফিশারী ঘাটে শ্রমিক সরবরাহের মাঝি ছিলেন এবং ঐ এলাকায় পাশাপাশি একটি চায়ের দোকান চালাতেন।

গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তিরা চায়ের দোকান চালানোর জন্য নিহত আবু তৈয়বের কাছ থেকে এক হাজার টাকা করে মাসোহারা দাবি করে। দাবিকৃত টাকা না দিলে তাকে বিভিন্ন সময় দেখে নেওয়ার হুমকি দিত। উক্ত ঘটনার প্রেক্ষিতে আবু তৈয়ব হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়। পরিকল্পিত ভাবে সংঘটিত এই হত্যাকাণ্ডকে তারা গণপিটুনি বলে চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে আসামিরা হত্যার বিষয়টি স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছেন বাকলিয়া থানার ওসি নেজাম উদ্দিন।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top