তালা কেটে বাসায় ঢুকে ১০ লাখ টাকা ও ২০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুট

Presentation1-63.jpg

জেলা প্রতিনিধি 

গাজীপুর মহানগরীর পূবাইল থানার কুদাব গ্রামে দুর্ধর্ষ ডাকাতি হয়েছে। গতকাল শুক্রবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ডাকাতদের হামলায় দুই ভাই গুরুতর আহত হয়েছেন। তাদের রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ডাকাতরা ঘর থেকে ২০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও ১০ লাখ টাকাসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়।

আহত দুই ভাইয়ের ভগ্নিপতি সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী নজরুল ইসলাম খান বিকি বলেন, শুক্রবার রাত ৩টার দিকে ৮-১০ জনের একদল সশস্ত্র ডাকাত তালা কেটে ও গেট ভেঙে বাড়িতে প্রবেশ করে।

ডাকাতরা ঘরে ঢুকে সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে এবং আলমারি থেকে ১০ লাখ টাকা ও ২০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুটে নেয়। এ সময় ঘরের মূল্যবান আসবাবপত্র তছনছ করে এবং ছয়টি মোবাইলসহ আরও মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে নেয় তারা। বাধা দেয়ায় সজীব পালোয়ান (৩৫) ও তার ভাই রাকিব পালোয়ানকে (৩৮) ছুরিকাঘাত করে ডাকাতরা। ছুরিকাঘাতে সজীবের কণ্ঠনালি ও রাকিবের হাত কেটে যায়।

ডাকাতরা চলে যাওয়ার পর তাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে। দুই ভাইকে গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে টঙ্গীর একটি প্রাইভেট হাসপাতাল ও পরে ঢাকার এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

খবর পেয়ে শনিবার সকালে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (জিএমপি) ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ডাকাতদের ফেলে যাওয়া কিছু গুরুত্বপূর্ণ আলামত জব্দ করেছে।

এ ব্যাপার পূবাইল থানা পুলিশের ওসি নাজমুল হক ভূঁইয়া বলেন, আমরা ডাকাতদের গ্রেফতারের চেষ্টা করছি। ডাকাতদের ফেলে যাওয়া কিছু গুরুত্বপূর্ণ আলামত জব্দ করেছি আমরা।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top