’’ইন্নালিল্লাহি- রাজিউন’’ পড়া মানে মৃত মানুষের জন্য দোয়া নয়

103412150_2851506588305020_4636058747665914513_o.jpg

অধ্যাপক হাসমত আলী / ফেসবুক  কর্নার

ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন পড়া মানে মৃত মানূষের জন্য দোয়া নয়। নিজেও মারা গিয়ে আল্লাহর কাছে ফিরে যাবো এমন ঘোষণা দিচ্ছি। না বুঝার কারণে, হররোজ পড়তে থাকা এরকম সত্য ঘোষণার আয়াত আমাদের জীবনে পরিবর্তন আনতে পারছেনা।
আমি আমার মতোই আছি।
# আগে চোর-ডাকাত ছিলাম, এখনো আছি।
# আগে সুদখোর – ঘুষখোর ছিলাম, এখনো আছি।
# আগে ওজনে কম দিতাম, ভেজাল মিশাতাম, দরকারী পণ্যের মজুত করতাম- অভ্যাস এখনো আছে।
# আগে মিথ্যা বলতাম, গীবত, চোগলখোরি করতাম- এখনো করি।
আগে যেই নাফরমান, জালিম ছিলাম- এখনো আছি।
# আগে মিথ্যা বক্তব্য, বিবৃতি ও সাক্ষ্য দিতাম- এখনো দিচ্ছি।
# আগে ক্ষমতার দাপটে ধরাকে সরা জ্ঞান করতাম, এখনো করছি।
# আগে নগ্ন-অর্ধনগ্ন থাকতাম, এখনো আছি মডার্ণ-আল্ট্রামডার্ণ জীবনযাপনে।
# আগে যেসকল ঈমান বিরোধী আদর্শ-নীতিকে একমাত্র অনুকরণীয় বলে রাস্তায় শোরগোল করতাম, এখনো করছি। অনলাইন-অফলাইন কোথাও থামিনি। আগের মতোই আছি।
# আগে বৃদ্ধ মা-বাবার খোঁজ নিতাম না, এখনো আছি আমার আমিতেই।

মৃত্যু সংবাদ বা বিপদের কথা শুনে আমিই তো বলিঃ
নিশ্চয়ই আমি আল্লাহর জন্য এবং তাঁর দিকে আমাকে ফিরতেই হবে।

আচ্ছা!
# একথার কোন প্রভাব আছে?
# কখনো কি জিজ্ঞেস করেছিঃ
হে আমার জানাজার নামাজের সম্ভাব্য ইমাম! আমি যা করি তা কি ঠিক আছে?
ভাবছি হয়তোঃ
আমার চেয়ে সে কি বেশি বুঝবে?

একটু অপেক্ষা করি। চোখের পাতা নড়া বন্ধ হোক। কড়ায় গন্ডায় বুঝবো। তখন অবশ্য বুঝেও লাভ হবেনা। না ফেরার দেশে যাত্রা। আর আসার সুযোগ হবেনা।
তাইঃ
বাঁচতে হলে ফিরতে হবে। মাগফেরাতের দিকেই ফিরতে হবে।
নিজেকে পাল্টাতেই হবে।

অধ্যাপক হাসমত আলী
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়
আপনার মন্তব্য লিখুন
Top