কক্সবাজার শহরে করোনা শনাক্ত হওয়ার পর লাপাত্তা দুই রোগী

Corona-virus-3.jpg

দিসিএম

কক্সবাজার শহরের বার্মিজ মার্কেট ও বৈদ্যঘোনায় করোনা শনাক্ত হওয়া দুই রোগী মোর্শেদ আলম (৪০) ও ইয়াসির আরাফাত (২৯) লাপাত্তা হয়ে গেছে।

করোনা ‘পজিটিভ’ হওয়ার পর থেকে তাদের মোবাইল ফোন বন্ধ। স্যাম্পল টেস্টের ডকুমেন্টে উল্লেখিত ঠিকানায় গিয়েও তাদের পাওয়া যায় নি।

যে কারণে দুই করোনা রোগীর সুনির্দিষ্ট বাসাবাড়ি বা ওই এলাকা লকডাউন করতে পারেনি স্থানীয় প্রশাসন। স্যাম্পল নিতে পারে নি স্বজনদের।

এ নিয়ে বার্মিজ মার্কেট ও বৈদ্যঘোনা এলাকার বাসিন্দারা উদ্বিগ্ন, আতঙ্কিত।

সদর উপজেলার স্বাস্থ্য প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, গত ১০মে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে মোর্শেদ আলম (৪০) নামের একজনের করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়। রোগির ঠিকানা বার্মিজ মার্কেট দিলেও সত্যতা মিলছে না।

এর আগে ৮মে ইয়াসির আরফাত (২৯) নামের আরেক করোনা রোগির ঠিকানা বৈদ্যর ঘোনা দিলেও সেখানে গিয়ে কোন সত্যতা পায় নি স্বাস্থ্যকর্মীরা।

যে কারণে এই দুই রোগির স্বজনদের মধ্যে করোনা রোগি আছে কিনা তা নিশ্চিত হতেও স্যাম্পল নেয়া সম্ভব হচ্ছেনা। এই নিয়ে আতঙ্গ দেয়া দিয়েছে স্থানীয়দের মধ্যে । তবে তারা আদৌ সঠিক ঠিকানা দিয়েছেন কিনা সন্দিহান এলাকাবাসী

 

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top