চকরিয়ায় চাঞ্চল্যকর খরুলিয়ার তরুণী হত্যার আসামীকে পুলিশে দিলো জনতা

96677028_657948958383697_6032541958214254592_n.jpg

শাহেদ মিজান,

সম্প্রতি চকরিয়ায় সিএনজি চালকদের হাতে ধর্ষণের পর এক তরুণী নৃশংস হত্যার ঘটনার মুলহোতাকে আটক করা হয়েছে। পেকুয়ার স্থানীয় জনতা ধর্ষক সাজ্জাদকে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেছে। সোমবার (১১ মে) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পেকুয়া উপজেলার শেখের কিল্লা ঘোনা এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে স্থানীয়রা আটক করে। আটক সাজ্জাদ ওই এলাকার আবুল হোসেন পুতুর ছেলে। চকরিয়ার কোনাখালী ইউনিয়ন এলাকার বিশ্বরোডে খরুলিয়ার তরুণী চম্পাকে ধর্ষণের পর ও হত্যা করা হয়।

পেকুয়া থানার উপ-পরিদর্শক সনজিত চন্দ্র নাথ জানান, আজ সকালে স্থানীয়রাই এই ব্যক্তিকে ধরে পুলিশকে খবর দিয়েছে। পেকুয়া থানা পুলিশ গিয়ে তাকে আটক করে নিয়ে আসা হয়েছে।

পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল আজম জানান , তরুণী চম্পা হত্যাকাণ্ডের মামলার আসামী সাজ্জাদ। গত বুধবার (৬ মে) চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা ইউনিয়নের খরুলিয়ায় নিজের বাড়িতে আসছিলেন ১৯ বছরের তরুণী চম্পা। রাতে সিএনজি করে আসার পথে সিএনজি চালক ও সাজ্জাদ মিলে তাকে ধর্ষণ করে। পরে সিএনজি থেকে ফেলে দিয়ে হত্যা করা হয় ওই তরুণীকে।

অনেকটা ক্লুহীন এই হত্যার ঘটনার রহস্য একদিনেই উদঘাটন করে কক্সবাজারস্থ র‌্যাব-১৫। এক অভিযানে একদিনের মাথায় পুরো হত্যাকান্ডটির রহস্য উদঘাটন করে ধর্ষণ ও হত্যাকান্ডে জড়িত সিএনজি চালক জয়নালকে (১৮) আটক করেছিলো র‌্যাব।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top