টেকনাফে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হামলায় স্থানীয় যুবক আহত

IMG_20200508_090450-copy.jpg

রফিক মাহমুদ,
টেকনাফ নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নবগঠিত সাথী গ্রুপের স্বশস্ত্র রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা পার্শ্ববর্তী এক যুবককে অপহরণ করে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে রক্তাক্ত করেছে। রক্তাক্ত যুবককে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। বৃহস্পতিবার (৭মে) রাত ৮টার দিকে এঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, উপজেলার হ্নীলা দক্ষিণ-পশ্চিম লেদা শিয়াইল্যা ঘোনার জাগির হোছাইনের পুত্র রাসেল করিম পাশ্ববর্তী একটি দোকানে হালিম খেতে গেলে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এরই সুত্রধরে নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পের এইচ ব্লকের সোলতান মুরুব্বীর পুত্র সরকার, মৃত আজিম উল্লাহর পুত্র হামিদুল্লাহ, আমান উল্লাহ, শহর আলীর পুত্র মোঃ ইলিয়াছ, মৃত মোঃ সালামের পুত্র মোবারক, তজুল আহমদের পুত্র করিম উল্লাহ, মোঃ সালামের পুত্র ছিদ্দিক আহমদ, আব্দুল জলিলের পুত্র মোঃ ইউনুছ, আবুল বশরের পুত্র আবুল কাশিম ধলাইয়া, ইলিয়াছের পুত্র আব্দুল মালেক ও জনৈক নোমান, জাফরু, মোঃ আলমসহ একটি গ্রুপ ধরে নিয়ে বেদম প্রহার ও এলোপাতাড়ি কুপিয়ে রক্তাক্ত করে অজ্ঞান অবস্থায় ফেলে ১০/১৫ রাউন্ড ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়।

খবর পেয়ে এলাকার লোকজন গিয়ে মুমূর্ষ অবস্থায় রাসেল করিমকে উদ্ধার করে লেদা আইএমও হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে মুমূর্ষ রাসেল করিমকে টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়।

এদিকে এলাকার একজন সাধারণ যুবকের উপর এই ধরনের হামলায় রাত পৌনে ১১টারদিকে স্থানীয় লোকজন জড়ো হলে হামলাকারীরা পাহাড় থেকে নেমে আরো ৭/৮ রাউন্ড ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে আতংক সৃষ্টি করেছে বলে প্রতিবেদককে জানিয়েছেন।

এই ব্যাপারে নয়াপাড়া পুলিশের আইসি মোঃ মনিরুল ইসলামের নিকট জানতে চাইলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, হামলাকারীদের গ্রেফতার করা হবে, অভিযান পরিচালনা করা হবে। এই ব্যাপারে টেকনাফ মডেল থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top