সমুদ্র ও উপকূলীয়

টেকনাফ, কুতুবদিয়া, মহেশখালীসহ ছয় জেলার ১৯ উপজেলায় নৌবাহিনী মোতায়েন

Bangladesh-Navy-Job.jpg

দেশে করোনাভাইরাসের বিস্তার প্রতিরোধে সমুদ্র ও উপকূলীয় ৬টি জেলার ১৯টি উপজেলায় নৌবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরএর (আইএসপিআর) ওয়েবসাইটে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বলা হয়েছে, দেশে করোনাভাইরাস জনিত উদ্ভুত পরিস্থিতি মোকাবেলায় বাংলাদেশ সরকারের নির্দেশনা বাস্থবায়নে বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে উপকুলীয় এলাকায় নিয়োজিত রয়েছে নৌবাহিনী। এ উপলক্ষে উপকূলীয় ৬টি জেলার ১৯টি উপজেলায় (ভোলা সদর, বোরহান উদ্দিন, দৌলতখান, চর ফ্যাশন, মনপুরা, লালমোহন, তজুমুদ্দিন, সন্দ্বীপ, হাতিয়া, টেকনাফ, কুতুবদিয়া, মহেশখালী, মংলা, বরগুনা সদর, আমতলী, বেতাগী, বামনা, পাথরঘাটা এবং তালতলী) নৌবাহিনীর সদস্যরা নিয়মিত টহল কার্যক্রম পরিচালনার পাশাপাশি তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করছে।

এছাড়া উপকূলীয় এলাকাগুলোতে অসামরিক প্রশাসনের সাথে সমন্বয়কার্যে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণের লক্ষ্যে জনসাধারণের মাঝে সামাজিক দূরত্ব বজায় নিশ্চিত করা, বিদেশফেরত নাগরিকদের কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করা এবং বিশেষ নজরদারীর ব্যবস্থা করাসহ আন্যান্য কার্যক্রম গ্রহণ করছে নৌবাহিনী।

উপকূলীয় বিভিন্ন দূর্গম এলাকায় ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাব্যবস্থা, সন্দেহজনক ব্যক্তিদের কোয়ারেন্টিন ব্যবস্থাসহ নিরবিচ্ছিন্নভাবে টহল প্রদান করে যাচ্ছে নৌবাহিনীর সদস্যরা। টহলের পাশাপাশি নৌবাহিনী তার দায়িত্বপ্রাপ্ত এলাকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও বেসামরিক প্রশাসনের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছে। এছাড়া যেকোনো প্রয়োজনে সার্বিক সহায়তা প্রদান করতে প্রস্তুত রয়েছে নৌবাহিনী।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top