ঈদগাঁও বাজারের নির্বাচন সম্পন্ন; সভাপতি মিন্টু, সেক্রেটারী রিকো

received_3467696409923499.jpeg

সেলিম উদ্দীন, ঈদগাঁও

কক্সবাজার জেলার ঐতিহ্যবাহী ও বৃহত্তম বানিজ্যিক কেন্দ্র ঈদগাঁও বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা পরিষদের বহুল প্রত্যাশিত নির্বাচন তীব্র প্রতিদ্বন্দিতা ও উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্য দিয়ে ২৮ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার পাবলিক লাইব্রেরী মিলনায়তনে সম্পন্ন হয়েছে।

র‌্যাব পুলিশের নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা নজিরবিহীন শান্তিপূর্নভাবে অনুষ্ঠেয় এ নির্বাচনে ভোট গ্রহণ কার্যক্রম শুরু হয় সকাল ৮ টায়। দুপুরে জুমার নামাজ ও খাওয়া – দাওয়ার জন্য আধ ঘন্টা বিরতি রেখে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত টানা প্রায় সাড়ে ৭ ঘন্টা পর্যন্ত ভোটারেরা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার হুমায়ুন কবির চৌধুরী হিমু জানান, নির্বাচনে মোট ভোটার ছিল ২ হাজারের সামান্য বেশী।
তিনি আরো জানান, গুজব বন্ধ ও নিরাপত্তা নিশ্চিতকরনে কোন ভোটারকেই ভোট কেন্দ্রে মুঠোফোন নিয়ে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি।
একজন প্রিজাইডিং অফিসারের ( ১ম শ্রেণির সরকারী কর্মকর্তা) নের্তৃত্বে ৬ ওয়ার্ডের জন্য বুথ খোলা হয় ৬ টি। প্রত্যেক বুথে একজন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের অধীনে নিয়োগ করা হয় আরো দু’জন পোলিং অফিসার।
নিজ নিজ বুথে বুথে গিয়ে ব্যবসায়ীগণ সু-শৃংখলভাবে নির্বিঘ্নে তাদের ভোটাধিকার সহজভাবে প্রয়োগ করতে পেরেছেন জানালেন ভোটার ছৈয়দ আহমদ।
দীর্ঘ পনের বছরেরও বেশী সময় পরে অনুষ্ঠেয় এ নির্বাচনে ১৩ টি পদে মোট ৪৪ জন প্রার্থী বিভিন্ন পদে প্রতিদ্বন্দিতা করেছেন।

নির্বাচনে চেয়ার প্রতীক নিয়ে সভাপিত নির্বাচিত হয়েছেন শাহেনেওয়াজ চৌধুরী মিন্টু ,মোটর সাইকেল প্রতীকে সহ সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন রায়হান আমিন, রিক্সা প্রতীক নিয়ে সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন রাজীবুল হক চৌধুরী রিকো, সিংহ প্রতীক নিয়ে সহ সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন হাসান তারেক, স্কুল ব্যাগ প্রতীক নিয়ে অর্থ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ নুরুল আমিন, সাকলাইন মোস্তাক প্রচার সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় এবং টেবিল ফ্যান প্রতীক নিয়ে দপ্তর সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন নাছির উদ্দিন।

অপরদিকে সদস্য পদে ৬টি ওয়ার্ড থেকে নির্বাচিত সদস্যরা হলেন- ১নং ওয়ার্ডে কাতাল মাছ প্রতীকে অনেকটা বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত হয়েছেন জসিম উদ্দিন আহমদ তার অপর দু-প্রতিদ্বন্দী লুৎফুর রহমান ও চাঁদ মিয়া প্রতীক বরাদ্দের পরপরই নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান।

সদস্য হিসেবে ২নং ওয়ার্ডে নির্বাচিত হয়েছেন জাহেদুল ইসলাম, ৩ নং ওয়ার্ডে আবদুল মোনাফ, ৪ নং ওয়ার্ডে মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, ৫ নং ওয়ার্ডে নুরুল আবছার সওদাগর এবং ৬ নং ওয়ার্ডে সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন শওকত আলম।

দীর্ঘ বছর পর অনুষ্টেয় নির্বাচনে যারা বিজয়ী হয়েছেন তাদের প্রতি ভোটরদের প্রত্যাশাও কম নয়।
ভোটার এমরান উদ্দিন জানান, নবনির্বাচিতরা যাতে অতি-সত্বর ঈদগাঁহ বাজারকে যানজটমুক্ত , পরিচ্ছন্ন ও ব্যবসাবান্ধব বাজার হিসেবে গড়ে তুলেন এমনটাই তার চাওয়া।

অপর ভোটার সাইফুল ইসলাম জানান, তিনি বর্ষা মৌসুমে বাজারের ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নতি চান এবং বাজারে যাতে কেউ চাঁদাবাজি করতে না পারে সেজন্য নবনির্বাচিতদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ মোট ৭ জনের একটি টিম এ নির্বাচন অনুষ্টানের যাবতীয় প্রস্ততি সম্পন্ন করে।
নির্বাচন কমিশনের সচিব শওকত আলম জানান, নির্বাচিতরা শপথ গ্রহণের পর থেকে টানা ৩ বছর দায়িত্ব পালন করে যাবেন।

রামু কক্সবাজার থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল দুপুর সাড়ে ১১ টা’র দিকে নির্বাচনী কার্যক্রম প্রত্যক্ষ করতে পাবলিক লাইব্রেরীতে আসেন এবং নির্বাচনের কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা ও ভোটারদের সাথে কথা বলেন।
নির্বাচনের সার্বিক পরিবেশ দেখে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন। স্থানীয় সাংবাদিকদের নিকট দেয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, ইতিমধ্যেই ঈদগাঁহকে থানায় উন্নীত করা হয়েছে। কউক চেয়ারম্যান লেঃ কর্ণেল (অবঃ) ফোরকান আহমদকে সাথে নিয়ে তিনি ঈদগাঁহকে উপজেলায় উন্নীতকরনের কাজ আরো জোরদার করা হবে বলে জানান।
একটি পরিচ্ছন্ন ও ব্যবসাবান্ধব বাজার হিসেবে ঈদগাঁহ বাজারকে গড়ে তোলার জন্য তিনি নবনির্বাচিতদের আহবান জানান।
এসময় জালালাবাদের ইউপি চেয়ারম্যান ও জেলা ছাত্রলীগীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক ইমরুল হাসান রাশেদ, ঈদগাঁহ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছৈয়দ আলম, ইসলামাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান নুর ছিদ্দিক এবং পোকখালীর ইউপি চেয়ারম্যান রফিক আহমদ, প্রধান নির্বাচন কমিশনার হুমায়ুন কবির হিমু, নির্বাচন কমিশন সচিব শওকত আলম, সদস্য কামাল উদ্দিন সওদাগর, নির্বাচন কমিশন সদস্য তারেক আজিজ, সদস্য সাইফুল ইসলাম এবং বজল আহমদসহ স্থানীয় সাংবাদিক নের্তৃবৃন্দ তার সাথে ছিলেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top