বিশ্বকাপ ফাইনালে ভারতীয় যুবাদের আচরণে ক্ষুব্ধ শচীন

000025_bangladesh_pratidin_Sachin-Tendulkar.png

মোহম্মদ আজহারউদ্দিন, কপিল দেব, বিষেন সিং বেদীর পর এবার অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ফাইনাল শেষে ভারতীয় তরুণ ক্রিকেটারদের আচরণ নিয়ে মুখ খুললেন শচীন টেন্ডুলকার। গোটা ঘটনায় তিনি রীতিমতো ক্ষুব্ধ। রবি বিষ্ণু, আকাশ সিংদের কার্যত ধমক দিলেন মাস্টার ব্লাস্টার।

গত ৯ ফেব্রুয়ারি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ ফাইনাল শেষ হতেই বিতর্কের শুরু। খেলা শেষ হতে মাঠেই ভারত-বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা বাদানুবাদ থেকে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন। আম্পায়ারের সামনেই এমন ঘটনা ঘটে। গোটা ঘটনাটি আইসিসির স্ক্যানারেই ছিল। ভিডিও ফুটেজ দেখে বাংলাদেশের তিন এবং ভারতের দুই ক্রিকেটারকে শাস্তি দেয় বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা।

শাস্তি পান বাংলাদেশের তৌহিদ হৃদয়, শামিম হোসেন এবং রাকিবুল হাসান। শাস্তি দেওয়া হয় ভারতীয় দলের আকাশ সিং এবং রবি বিসনোইকে। বিশ্বকাপের মঞ্চে এমন ব্যবহারের জন্য আকাশ সিং এবং রবি বিষ্ণুকে কার্যত সমালোচনার মুখে পড়তে হয়। এবার শচীন তেন্ডুলকার বলেন, ব্যাটিং কিংবা বোলিং করার সময় আগ্রাসন দেখানো যেতেই পারে। সেটা হয়তো ভাল। কিন্তু মাথায় রাখতে হবে সেই আগ্রাসনের জন্য যেন দলের অসম্মান কখনও না হয়।‌

পাশাপাশি শচীন আরও বলেন, ‌কাউকে শেখানোর চেষ্টা তো করাই যেতে পারে। কিন্তু বিষয়টা নির্ভর করছে, যাকে শেখানো হচ্ছে সে কতটা শিখবে তার ওপর বা আদৌ শিক্ষা নেবে কিনা। আবেগের মুহূর্তে নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করা শিখতে হবে। ভুলে গেলে চলবে না সবাই দেখছে। গোটা বিশ্বের নজর রয়েছে তোমার দিকে। খেলার মাঠে আগ্রাসন হওয়া ভাল। তার জন্য খারাপ শব্দ ব্যবহার করার দরকার পড়ে না।‌

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top