রামুতে ধর্ষনে অভিযুক্ত শিক্ষক কর্তৃক মিথ্যা মামলায় আ,লীগ নেতৃবৃন্দের আগাম জামিন

PicsArt_12-18-03.32.54.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

রামুতে ধর্ষনে অভিযুক্ত শিক্ষক ছৈয়দ করিম কর্তৃক দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা থেকে মহামান্য হাইকোর্টে আগাম জামিন পেলেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজনীন সরওয়ার কাবেরী, রামু উপজেলা আওয়ালীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইউনুচ রানা চৌধুরী, চিত্র শিল্পী ও আওয়ামীলীগ কর্মী তানবির সরওয়ার রানা,রামু উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক জয়নাল আবেদিন ও অফিস সহকারী রনজিত দে। আজ ১৮ ডিসেম্বর বুধবার মহামান্য হাইকোর্টে আগাম জামিনের আবেদন করলে বিচারপতি মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন ও রিয়াজ উদ্দিন খানের যৌথ ব্যাঞ্চ ৮ সপ্তাহের আগাম জামিন মঞ্জুর করেন। উল্লেখ্য যে গত ১৯ নভেম্বর রামু উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রী ধর্ষনে অভিযুক্ত শিক্ষক ছৈয়দ করিমের অবৈধ পুনঃ নিয়োগের বিরুদ্ধে  ন্যায় সঙ্গত প্রতিবাদ করতে গিয়ে নারী সমাজের অহংকার অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে বলিষ্ঠ নেতৃত্বদানকারী জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজনীন সরওয়ার কাবেরী, স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের অগ্রনায়ক,বিশিষ্ট সমাজ সেবক রামু উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইউনুচ রানা চৌধুরী ও কক্সবাজার আর্ট ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি চিত্র শিল্পী  আওয়ামীলীগ কর্মী তানবির সরওয়ার রানাসহ মোট সাতজনের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ এনে রামু থানায় একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। উক্ত মিথ্যা মামলায় অভিযুক্তদের মাহামান্য হাইকোর্ট আট সপ্তাহের আগাম জামিন প্রদান করেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top