৭১এর বিজয় কোন একক গোষ্ঠীর নয়……মাওলানা আলমগির

IMG_20191216_164331.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তি—

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন ককসবাজার জেলায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত:

বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন কক্সবাজার জেলা সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ আলমগির, মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে শাহাদাতবরণকারী বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গভীর শ্রদ্ধাভরে স্মরণ এবং মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে তাদের মাগফিরাত কামনা করে বলেছেন,মানবাধিকার ও ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার জন্য আমরা যে সংগ্রাম করে স্বাধীনতা অর্জন করেছিলাম তা আজও বাস্তবায়িত হয়নি।
স্বাধীনতার স্বপ্ন ছিল বাক-স্বাধীনতা, গণতন্ত্রের মুক্তি, অর্থনৈতিক মুক্তি অথচ এখনো আমাদের গণতন্ত্রের মুক্তির জন্য লড়াই করতে হচ্ছে। বাংলাদেশে আইনের শাসন আজ ভূলুণ্ঠিত, মানুষ নিরাপদ নয়, মৃত্যুর স্বাভাবিক গ্যারান্টি নাই, বাকস্বাধীনতা নাই, সাংবাদিক সমাজও আজ বিপন্ন তাদের অফিসে হামলা ও ভাঙচুর, সম্পাদকসহ সাংবাদিকদের লাঞ্ছিত করা হচ্ছে।
স্বাধীনতা ও বিজয়কে অর্থবহ করতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ ভূমিকা পালন করতে হবে।

আজ বিকাল ৩টায় শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন কক্সবাজার জেলা আয়োজিত মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে সভাপতির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক এম ইউ বাহাদুরের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য প্রদান করেন জেলা সহ-সভাপতি নুরুল ইসলাম, সহ-সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ শাহজাহান, তৈয়ব উল্লাহ, অর্থ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, সদর উপজেলা সভাপতি মোস্তাক আহমেদ ইউপি মেম্বার, ঈদগাহ উপজেলা সভাপতি মুহাম্মদ ইউসুফ, উখিয়া উপজেলা সভাপতি মুহাম্মদ শাহ আলম প্রমূখ।

মাওলানা আলমগির আরো বলেন স্বাধীনতা অর্জনের চেয়েও কঠিন হলো স্বাধীনতা রক্ষা এবং স্বাধীনতার লক্ষ্যসমূহ অর্জন করা। স্বাধীনতাযুদ্ধের রণাঙ্গনে যারা নেতৃত্ব দিয়েছিল আজকে তাদেরকে নিগৃহীত ও দেশ বিরোধী শক্তি হিসেবে আখ্যায়িত করা হচ্ছে।
দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতির ফলে আজ জনগণের নাভিশ্বাস উঠেছে।
এই বছরে প্রাই ৫ হাজার নারী ধর্ষনের শিকার হয়েছে। তাই অধিকার পুনঃপ্রতিষ্ঠা করতে প্রত্যেক নাগরিককে একজন বলিষ্ঠ বিপ্লবীর ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে হবে।
দেশপ্রেম ও ইসলামী মূল্যবোধের ভিত্তিতে জাতীয় ঐক্য গঠন করে ফ্যাসিস্টের হাত থেকে জনগণকে মুক্ত করতে হবে।

দীর্ঘ ৯ মাস রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বিজয় অর্জিত হয়েছে।
৭১ এর বিজয় কোন একক গোষ্ঠীর নয়।তাই বিজয়ের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে দারিদ্র, ক্ষুধা মুক্ত, সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ ও মানুষের মুক্তি অর্জনের লক্ষ্যে আরো একটি যুদ্ধের জন্য জাতিকে প্রস্তুতি গ্রহন করতে হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top