পটিয়ায় গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

lash.jpg

চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার উপজেলার জিরি ইউনিয়নের দক্ষিণ জিরি গ্রামে নিজ ঘর থেকে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃত খায়রুন্নেছা কুসুম (২৫) এলাকার মো. ইব্রাহিমের স্ত্রী। ইব্রাহিম চট্টগ্রাম নগরীতে একটি বেসরকারি হাসপাতালে চাকরি করেন।

শনিবার (৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে  গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তার গলায় শ্বাসরোধের চিহ্ন আছে। এছাড়া গৃহবধূর মরদেহ ঘরে রেখে স্বামী ও শ্বশুর-শ্বাশুড়ি পালিয়ে গেছে বলেও জানিয়েছে পুলিশ।

পটিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বোরহান উদ্দিন মজুমদার গনমাধ্যমকে বলেন, ‘প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন ৫ বছর আগে ইব্রাহিমের সঙ্গে কুসুমের বিয়ে হয়। তাদের চার বছর বয়সী এক ছেলে আছে। দুপুরে ওই ছেলেকে নিয়ে তার দাদা-দাদী ঘর ছেড়ে যান। এর আগে ইব্রাহিম চলে যান। হঠাৎ ইব্রাহিমের মা-বাবাকে একসঙ্গে চলে যেতে দেখে প্রতিবেশী কয়েকজনের মনে সন্দেহ হয়। তারা ওই ঘরে গিয়ে মেঝেতে পাটির ওপর শায়িত অবস্থায় কুসুমের মরদেহ দেখে থানায় খবর দেন।’

“কুসুমের গলার দু’পাশে দাগ আছে। শ্বাসরোধে তার মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করছি। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনের পেলে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে”, বলেন পুলিশ কর্মকর্তা।

পলাতক স্বামী ও শ্বশুর-শ্বাশুড়িকে আটক করতে অভিযান চলছে বলেও জানিয়েছেন এসআই বোরহান।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top