মঞ্জুর নতুন দল গঠন নিয়ে যা বললেন জামায়াতের সেক্রেটারি

Image-003027281-565x323-10.jpg

জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমান ও বহিষ্কৃত নেতা মজিবুর রহমান মঞ্জু। ফাইল ছবি

নিউজ ডেস্ক।।

বহিষ্কৃত নেতা মজিবুর রহমান মঞ্জুর নতুন দল ঘোষণায় কোনো প্রভাব পড়বে না বলে জানিয়েছেন জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমান।

শনিবার বিবিসি বাংলায় দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেন।

ডা. শফিকুর রহমান বলেন, বহিষ্কৃত নেতা মজিবুর রহমান মঞ্জুর দল গঠনের উদ্যোগ জামায়াতে ইসলামীর উপর কোনো প্রভাব ফেলবে না।

তিনি উল্লেখ করেন, মজিবুর রহমান মঞ্জু এক সময় জামায়াতের সঙ্গে ছিলেন এবং একটা প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে এসেছেন। এখন মঞ্জু যে দল গঠন করছেন, এমন অনেক দল বাংলাদেশে থাকতে পারে।

তিনি বলেন, কেউ দল গঠন করতে চাইলে, সে অধিকার তার আছে।

তবে মুক্তিযুদ্ধে জামায়াতের ভূমিকার জন্য ক্ষমা চাওয়ার ইস্যু বা সংস্কার নিয়ে যে বিরোধের কথা আসছে, সেই প্রশ্নে ডা. শফিকুর রহমান বলেন, আমাদের দলে সংস্কারপন্থী বলে কিছু নেই। কাউকে সেভাবে চিহ্নিতও করা হয় না। কোনো ইস্যুতে ভিন্নমত আসতে পারে, সে ধরনের মতামতকে আমরা সম্মান করে এগুচ্ছি।

মজিবুর রহমান মঞ্জুর দল নিয়ে আমাদের নেতাকর্মীরা সবাই সতর্ক রয়েছেন বলে জানান তিনি।

এরআগে শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে জামায়াতের বহিষ্কৃত নেতা মজিবুর রহমান মঞ্জুর নেতৃত্বে ‘জনআকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’ নামে আত্মপ্রকাশ ঘটে নতুন এক রাজনৈতিক সংগঠনের।

সংবাদ সম্মেলনে মঞ্জু বলেন, এটা কোনো ধর্মীয় রাজনৈতিক দল হবে না। দেশের সব জনগোষ্ঠীর প্রতিনিধিত্ব থাকবে এতে।

তিনি বলেন, পূর্ণাঙ্গ দল গঠনে পাঁচটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এসব কমিটি তাদের কাজ শুরু করে দিয়েছে।

আর আর ১৯ দফা কর্মসূচির সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করবেন মঞ্জু। ছাত্রশিবিরের সাবেক সভাপতি মঞ্জু চট্টগ্রাম কলেজ ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়েরও সভাপতি ছিলেন। জামায়াতের কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরারও সদস্য ছিলেন তিনি।

মঞ্জু দাবি করেন, এই দল গঠনের উদ্যোগের নেপথ্যে ক্ষমতাসীন দলের কোনো মদদ নেই।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে জামায়াত নেতাদের আইনজীবী তাজুল ইসলামও এই সংবাদ সম্মেলনে ছিলেন। তাজুল দাবি করেন, তিনি আগে জামায়াতের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন না, তবে পেশাগতভাবে তিনি জামায়াত নেতাদের আইনজীবী হিসেবে কাজ করেছিলেন।

এর আগে মজিবুর রহমান মঞ্জু যুগান্তরকে বলেন, এ উদ্যোগ ধর্মভিত্তিক নয়, এমনকি সুনির্দিষ্ট তত্ত্বের আদলে আদর্শভিত্তিকও নয়। সম্ভাব্য ঘোষণাপত্রে বলা হয়েছে, ‘জন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’ হচ্ছে একদল আশাবাদী মানুষের উদ্যোগ ও তাদের ভাবনা।

তিনি আরও বলেন, জন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ নামে উদ্যোগ শুরু হলেও রাজনৈতিক দলের নাম, লোগো-পরিচয় আরও পরে নির্ধারণ করা হবে। নতুন এ উদ্যোগের সমন্বয়ক হিসেবে কাজ করবেন তিনি।

এর আগে জামায়াতে সংস্কার এবং একাত্তরের ভূমিকার জন্য ক্ষমা চাইতে শীর্ষ নেতৃত্বকে রাজি করাতে ব্যর্থ হয়ে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি পদত্যাগ করেন দলের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেলের দায়িত্ব পালনকারী ব্যারিস্টার রাজ্জাক। কয়েক বছর ধরে তিনি লন্ডনে স্বেচ্ছা নির্বাসনে আছেন।

ব্যারিস্টার আবদুর রাজ্জাক জামায়াত বিলুপ্ত করে নতুন দল গঠনের পরামর্শ দিয়েছিলেন দলের আমীর মকবুল আহমাদকে। তার পদত্যাগের দিনই জামায়াত থেকে বহিষ্কৃত হন শিবিরের সাবেক সভাপতি মজিবুর রহমান মঞ্জু।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top