সব ধর্মের অনুসারীদের নিজ ধর্ম পালনের সমান সুযোগ নিশ্চিত করেছে সরকার-ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

chakaria-matamuhori-seto-20-4-19-3.jpg

বলরাম দাশ অনুপম:

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী আলহাজ¦ এডভোকেট শেখ মোঃ আব্দুল্লাহ বলেছেন-জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল সকল সম্প্রদায়ের মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে ক্ষুধা এবং দারিদ্রমুক্ত সম্প্রীতিপূর্ণ সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা করার। বর্তমানে জাতির পিতার সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি আরো বলেন-ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দেশের সকল ধর্মের অনুসারীদের নিজ ধর্ম পালনের জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত করা আমার দায়িত্ব। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির মাধ্যমে সকলের জন্য এদেশ বাসযোগ্য করাই বর্তমান সরকারের লক্ষ্য। এ মাটিতে সবাই সমান অধিকার নিয়ে শান্তিতে বসবাস করতে পারবে।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শনিবার বিকেলে বিয়াম ফাউন্ডেশন মিলনায়তনে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়াধীন বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের প্যাগোডা ভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা প্রকল্পের (২য় পর্যায়) উদ্যোগে “শিশুর বিকাশে প্যাগোডা ভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষার গুরুত্ব” শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. মোয়াজ্জেম হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ¦ এডভোকেট শেখ মোঃ আব্দুল্লাহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মমতা ও মানবিকতার কথা উল্লেখ করে বলেন, রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দিয়ে বিশ্ববাসীর কাছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে সুনাম অর্জন করেছেন তা অবিশ্বাস্য। জাতিসংঘও প্রধানমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

তিনি বলেন-আমরা শান্তিপূর্ণ ও গণতান্ত্রিক সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে চাই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার ধর্মের নামে মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। প্রধানমন্ত্রীর বিচক্ষণ নেতৃত্বের জন্য বাংলাদেশে শান্তিপূর্ণ সমাজ প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, সদর-রামু আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য বাসন্তি চাকমা, ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর সহ-ধর্মীনি এডভোকেট রাশিদা বেগম ও প্যাগোডা ভিত্তিক প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা প্রকল্পের (২য় পর্যায়) প্রকল্প পরিচালক (উপ-সচিব) মোঃ সাখাওয়াত হোসেন। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের পাবলিক রিলেশন অফিসার মোঃ আনোয়ার সাঈদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত কর্মশালায় অতিথি হিসেবে বক্তব্যে রাখেন-বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ভাইস চেয়ারম্যান সুপ্তভূষণ বড়–য়া, ট্রাস্টি এডভোকেট দীপংকর বড়–য়া পিন্টু, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি অধ্যাপক প্রিয়তোষ শর্মা চন্দন।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top