আর বেঁচে নেই অগ্নিদগ্ধ অবুঝ সেই সুমাইয়া

thecmbd-15.jpg

দিসিএম

চিকিৎসকদের কর্মবিরতির কারণে দীর্ঘ পাঁচ ঘন্টা কক্সবাজার সদর হাসপাতালের বারান্দায় দাঁড়িয়েছিলেন মা। অনেক অজুহাত দেখানোর পর অবশেষে প্রাথমিক চিকিৎসা। এসব নির্মমতাকে সঙ্গে নিয়ে টানা পাঁচ দিন মৃত্যু’র সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে হেরে গেলেন দগ্ধ শিশু সেই সুমাইয়া আক্তার (৪)।

কক্সবাজার সদর ঝিলংজা ইউনিয়নের পূর্ব লারপাড়া এলাকার সুমাইয়া চমেকে টানা ৫ দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে গত শনিবার বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে মারা যায় ।

সুমাইয়ার মা সেতারা বেগমের দাবি , যদি আমার মেয়েকে কক্সবাজার সদর হাপাতালে দ্রুতচিকিৎসা দেয়া হতো তাহলে আজ তাকে হারাতে হতোনা। কিন্তু যে নির্মম আচরণ আমার সাথে করেছে তা আমি বুঝতে পারিনি।

বিস্তারিত আসছে…

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top