শেখ হাসিনা-ডাকসু নেতৃবৃন্দের-সাক্ষাৎ

ক্যাম্পাসে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

dhaka-14.jpg

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তরুণ প্রজন্মের মেধাকে কাজে লাগিয়ে তার সরকার দেশকে আরো সামনে এগিয়ে নিয়ে যেতে চায় উল্লেখ করে নবনির্বাচিত ডাকসু নেতৃবৃন্দের উদ্দেশ্যে ক্যাম্পাসে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা চাই বিশ্ববিদ্যালয় সুন্দরভাবে চলুক, আর এজন্য সেখানে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ থাকতে হবে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার বিকেলে তার সরকারি বাসভবন গণভবনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল ছাত্র সংসদের নবনির্বাচিত নেতৃবৃন্দের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে একথা বলেন। শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা তরুণ প্রজন্মের মেধা ও মননকে আমাদের উন্নয়নের কাজে সম্পৃক্ত করতে চাই, তাঁদের চিন্তা-ভাবনাকে কাজে লাগাতে চাই।’

ডাকসু’র সহসভাপতি নুরুল হক নূর (ভিপি), সাধারণ সম্পাদক (জিএস) গোলাম রব্বানী ও সহসাধারণ সম্পাদক (এজিএস) সাদ্দাম হোসেন অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।

এছাড়া বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক চৌধুরী শোভন এবং হল সংসদের ১৮ জন সহসভাপতি বক্তৃতা করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি ও সংগঠনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান সঞ্জিৎ চন্দ্র দাস স্বাগত বক্তৃতা করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনে বিজয়ীরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে গণভবনে গিয়েছিলেন শনিবার বিকেলে। প্রধানমন্ত্রীর সাথে জীবনের প্রথম সাক্ষাতে নিজের মৃত মায়ের প্রতিচ্ছবি পেয়েছেন ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নূর। শনিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সাথে বৈঠকে দেয়া বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, বৈঠকের শুরুতে হল সংসদের নির্বাচিত জিএসরা বক্তব্য দেন। এক পর্যায়ে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বক্তব্য দেন ভিপি নূরুল হক নূর। বক্তব্যের ফাঁকে আপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি। নূর বলেন, ‘ছোটবেলায় আমি মাকে হারিয়েছি। আপনাকে (শেখ হাসিনা) দেখে আমার মৃত মায়ের কথা মনে হচ্ছে। আপনার মাঝে আমি আমার মায়ের প্রতিচ্ছবি খুঁজে পাই।’

এ সময় প্রধানমন্ত্রী নূরকে তার পাশে বসান। বসার আগে তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাছে গিয়ে পা ছুঁয়ে সালাম করেন।

বিকেল সোয়া ৩টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে গণভবনে যান ভিপি নুরুল হক নূর ও জিএস গোলাম রাব্বানীর নেতৃত্বে ডাকসুর নবনির্বাচিতরা। সেখানে বিকেল সাড়ে ৪টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে তাদের বৈঠক শুরু হয়।

এর আগে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নুর উবারে; বাকীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে চড়ে নবনির্বাচিত প্রতিনিধিরা গণভবনের উদ্দেশে রওনা হন।

দীর্ঘ ২৮ বছর পর গত ১১ মার্চ ডাকসু নির্বাচনে ভিপি এবং সমাজসেবা সম্পাদক ছাড়া বাকি ২৩টি পদে জয়ী হয়েছে ছাত্রলীগ। নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপির অভিযোগ তুলে তা বর্জন করেছে ছাত্রলীগ ছাড়া সবক’টি প্যানেল। তারা পুনর্নির্বাচন দাবি করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে আল্টিমেটাম দিয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top