কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু’র জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস পালিত

Presentation1-62.jpg

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯ তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস ২০১৯ উদযাপন উপলক্ষ্যে জেলা প্রশাসন কক্সবাজার উদ্যোগে দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে। দিবসটির সূচনা করা হয় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে জেলা প্রশাসন কর্তৃক পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে। এরপর বেলুন উড়িয়ে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয় দিনব্যাপী কর্মসূচির। এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে শুরু হয়ে প্রস্তাবিত শেখ রাসেল শিশু পার্ক প্রাঙ্গণ হয়ে বিয়াম ফাউন্ডেশনে এসে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন কক্সবাজার জেলার সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, কানিজ ফাতেমা আহামেদ, কউক চেয়ারম্যান কর্নেল (অব.) ফোরকান আহামেদ, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, কক্সবাজার পৌর মেয়র

জিবুর রহমান, সিআইপি সালাহউদ্দিন আহমেদ, জেলার বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারী, রাজনীতিবিদ, মুক্তিযোদ্ধা, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, সহস্রাধিক শিক্ষার্থীসহ স্থানীয় জনগণ।
শোভাযাত্রা শেষে কক্সবাজার বিয়াম ফাউন্ডেশন অডিটোরিয়ামে কোমলমতি শিশুদের নিয়ে কাটা হয় ৯৯ পাউন্ডের একটি সুদৃশ্য কেক। এরপর শুরু হয় আলোচনা সভা। আলোচনা সভায় স্বাধীনতার মহান স্থপতির গৌরবময় জীবন ও তার আদর্শ নতুন প্রজন্মের কাছে উপস্থাপন করা হয়।
এছাড়াও বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয় এবং এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
এছাড়াও রোববার বিকেলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী পালনে বিকেলে সমুদ্র সৈকতের লাবনী পয়েন্টের উন্মুক্ত মঞ্চে থাকবে বর্ণাঢ্য নানান আয়োজন। যাতে থাকবে বিকেল ৪টায় ৯৯তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ ঘুড়ি ফেডারেশনের সহযোগিতায় ৯৯ মিনিটের ঘুড়ি উৎসব, যাতে উড়ানো হবে ৯৯টি ঘুড়ি। এছাড়াও জাতির পিতাকে নিবেদন করে ৯৯জন শিল্পীর গান পরিবেশিত হবে, সেই সাথে আবৃত্তি হবে জাতির পিতাকে নিবেদিত ৯৯ শব্দের কবিতা। উৎসবের ৯৯ শিরোনামের এই অনুষ্ঠানে থাকবে স্মৃতিতে বঙ্গবন্ধু নামের স্মৃতিচারণ মূলক কথা মালার আয়োজন করা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top