মাইকেল জ্যাকসনের খামারবাড়ি বিক্রি

safe_image.php_-9.jpg

প্রয়াত পপসম্রাট মাইকেল জ্যাকসন। আরাম-আয়েশের জন্য ১৯ কোটি ৫০ লাখ ডলার দিয়ে কিনেছিলেন একটি খামারবাড়ি। যার নাম দিয়েছিলেন ‘নেভারল্যান্ড র‌্যাঞ্চ’। ২ হাজার ৭০০ একর জায়গাজুড়ে নির্মিত বিলাসবহুল এ বাড়িটিতে রয়েছে রেললাইন, অগ্নিসহায়তা কেন্দ্র, বিস্তীর্ণ বাগান।

মূল ভবনে রয়েছে ৬টি শোয়ার ঘর, ৯টি বাথরুম, একটি মাস্টার বেডরুম ও দুটি মাস্টার টয়লেটসহ একটি চিলেকোঠা। ভেতরে লেক, সুইমিং পুলসহ খেলার ব্যবস্থা ছাড়াও আছে একটি থিয়েটার হল। ১৯৮২ সালে এ বাগানবাড়িটির স্থাপত্যশৈলীর নকশা করেছিলেন রবার্ট অলটেভার্স।

বাড়িটিতে মূলত জ্যাকসন তার অবসরে একান্তে গোপনে সময় কাটাতেন। এ বাড়িতে জ্যাকসন কর্তৃক শিশু যৌন হেনস্তারও অভিযোগ রয়েছে। মাইকেল জ্যাকসনের মৃত্যুর পর এ বাড়িটি বিক্রির সিদ্ধান্ত হয়। ২০১৫ সালে নেভারল্যান্ড র‌্যাঞ্চের দাম হাঁকা হয়েছিল ১০ কোটি ডলার; কিন্তু সাড়া পাওয়া যায়নি। পরে দাম কমিয়ে করা হয় ৬ কোটি ৭০ লাখ ডলার। তাতেও কেউ সাড়া দেয়নি।

এবার মাত্র ৩ কোটি ১০ লাখ ডলারে সেটি বিক্রির বিজ্ঞাপন দেয়া হয়েছে। সঙ্গে নামও বদলে দেয়া হয়েছে। বাড়িটির নতুন নাম ‘সাইকেমোর ভ্যালি র‌্যাঞ্চ’। এ বাড়ি নিয়ে দীর্ঘদিন পর আবারও নতুন করে আলোচনায় এসেছেন প্রয়াত পপ তারকা মাইকেল জ্যাকসন। কিছুদিন আগে প্রয়াত এ পপ তারকাকে নিয়ে দুই পর্বের একটি তথ্যচিত্র তৈরি করেছে এইচবিও।

সেখানে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন মাইকেল জ্যাকসনের কাছে যৌন নির্যাতনের শিকার দুই ব্যক্তি। এ খামারবাড়িতেই নাকি দুই শিশুকে যৌন নির্যাতন করেছিলেন মাইকেল জ্যাকসন। সেই দুই শিশু এখন ৩০ বছরের যুবক। তথ্যচিত্রের নাম রাখা হয়েছে ‘লিভিং নেভারল্যান্ড’। চলতি বছরই এটি প্রচার হবে বলে জানা গেছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top