সিজদায় বিশ্বনবির পঠিত দোয়া

safe_image.php_-3.jpg

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন ‘তোমরা সেভাবে নামাজ আদায় কর; যেভাবে আমাকে পড়তে দেখেছো।’ সুন্নত তরিকায় ধীরস্থিরভাবে নামাজের প্রতিটি রুকন আদায় করতে হবে। নামাজের প্রতিটি রুকনেই রয়েছে মাসনুন দোয়া। যে দোয়াগুলো রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পাঠ করতেন। তিনি সিজদায় অনেক দোয়া পড়তেন। যার কিছু তুলে ধরা হলো-

সিজদায় বিশ্বনবির দোয়া
সিজদাতে তিনি এই দুআ পড়তেন এবং পড়ার আদেশ করতেন-

উচ্চারণ : সুবহানা রাব্বিয়াল আ’লা।
অর্থ : আমি প্রশংসার সাথে সুমহান প্রভুর পবিত্রতা বর্ণনা করছি।’

হজরত আয়িশা রাদিয়াল্লাহু আনহা থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তাঁর রুকু ও সিজদায় কখনো কখনো তাসবিহের সঙ্গে এ দোয়াটিও পড়তেন-

উচ্চারণ : সুবহানাকা আল্লাহুম্মা রাব্বানা ওয়া বিহামদিকা আল্লাহুম্মাগফিরলি।’ (বুখারি ও মুসলিম)

অর্থ : আপনার  প্রশংসা হে আল্লাহ! আপনি আমাদের প্রভু! আপনার প্রশংসার সহিত আপনার পবিত্রতা ঘোষণা করছি। হে আল্লাহ! আপনি আমাকে ক্ষমা করুন।’

হজরত আয়িশা রাদিয়াল্লাহু আনহা থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তাঁর রুকু ও সিজদায় কখনো কখনো তাসবিহের সঙ্গে এ দোয়াটিও পড়তেন-

উচ্চারণ : ‘সুব্বুহুন কুদ্দুসুন রাব্বুল মালাইকাতি ওয়ার রূহ।’ (মুসলিম)
অর্থ : ‘সকল ফেরেশতা এবং জিবরিলের প্রতিপালক অতিপবিত্র।’

হজরত আলি রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যখন সিজদা করতেন তখন তিনি বলতেন-

উচ্চারণ : ‘আল্লাহুম্মা লাকা সাজাদতু ওয়া বিকা আমানতু ওয়া লাকা আসলামতু সাজাদা ওয়াজহিয়া লিল্লাজি খালাকাহু ওয়া চাওয়ারাহু ওয়া শাক্কা সামআ’হু ওয়া বাচারাহু তাবারাকাল্লাহু আহসানুল খালিক্বিন।
অর্থ : হে আল্লাহ! তোমার জন্যই সিজদা করছি। একমাত্র তোমার প্রতিই ঈমান এনেছি এবং তোমার কাছেই আত্মসমর্পন করেছি। আমার মুখমণ্ডল ঐ সত্ত্বার জন্য সিজদাবনত হয়েছে, যিনি উহাকে সৃষ্টি করেছেন, সুসমন্বিত আকৃতি দিয়েছেন এবং তাতে কান ও চক্ষু স্থাপন করেছেন। নিপুনতম সৃষ্টিকর্তা আল্লাহ তাআলা কত কল্যাণময়!’

হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, সিজদায় বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এ দোয়াটিও পাঠ করতেন-

উচ্চারণ : আল্লাহুম্মাগফিরলি জামবি কুল্লাহু দিক্কাহু ওয়া ঝুল্লাহু ওয়া আউয়ালাহু ওয়া আখিরাহু ওয়া আলানিয়্যাতাহু ওয়া সিররাহু।’ (মুসলিম, মিশকাত)
অর্থ : হে আল্লাহ! তুমি আমার ছোট-বড়, পূর্বের-পরের এবং প্রকাশ্য ও অপ্রকাশ্য সকল গোনাহ মাফ করে দাও।’

হজরত আয়িশা রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, ‘এক রাতে আমি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বিছানায় পেলাম না। আমি তাঁকে খুঁজতে লাগলাম। আমার হাত তাঁর পা মোবরকের তলাতে ঠেকলো। তখন তিনি মসজিদে উভয় পায়ের পাতা খাড়া অবস্থায় সিজদায় ছিলেন। তখন তিনি বলছিলেন-

উচ্চারণ : আল্লাহুম্মা ইন্নি আ’উজু বি-রিদাকা মিন সাখাতিকা ওয়া বি-মুআ’ফাতিকা মিন উ’কুবাতিকা ওয়া আ’উজুবিকা মিনকা লা উহসি ছানাআন আলাইকা আংতা কামা আছনাইতা আলা নাফসিকা। (মুসলিম, মিশকাত)
অর্থ : ‘হে আল্লাহ! তোমার সন্তুষ্টির মাধ্যমে তোমার অসন্তুষ্টি হ’তে আশ্রয় চাই। আর তোমার শাস্তি হ’তে পরিত্রাণ চাই। তোমার প্রশংসা করে শেষ করা যায় না। তুমি সেই প্রশংসার যোগ্য, যেরূপ তুমি নিজেই করেছ।’

হজরত আবি মুসা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন যে, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সিজদায় এ দোয়াটিও পড়তেন-
উচ্চারণ : আল্লাহুম্মাগফিরলি খাত্বিয়াতি ওয়া ঝাহলি ওয়া ইসরাফি ফি আমরি ওয়া আংতা আ’লামু বিহি মিন্নি; আল্লাহুম্মাগফিরলি ঝিদ্দি ওয়া হাযলি ওয়া খাত্বায়ি ওয়া আ’মদি ওয়া কুল্লু জালিকা ইংদি; আল্লাহুম্মাগফিরলি মা ক্বাদ্দামতু ওয়া মা আখ্খারতু ওয়া মা আসরারতু ওয়া মা আ’লানতু আংতা ইলাহি লা ইলাহা আংতা। (বুখারি ও মুসলিম)

অর্থ : হে আল্লাহ্! তুমি আমার অসতর্কতা বশত কৃত গুনাহ, অজ্ঞতা বশত অপরাধ, আমার কাজের ক্ষেত্রে সীমালংঘন এবং তুমি আমার ঐ সমস্ত অপরাধও ক্ষমা করে দাও যে সম্পর্কে তুমি আমার চেয়ে অধিক অবগত আছ। হে আল্লাহ্! তুমি আমার চেষ্টাপ্রসূত, হাসি-ঠাট্ট্রা প্রসূত, ভুলবশত এবং ইচ্ছাকৃত সকল গুনাহ্ মা’ফ করে দাও। উপরোক্ত সকল প্রকার অপরাধই আমার মধ্যেই রয়েছে। হে আল্লাহ! আমার পূর্বের, পরের, প্রকাশ্য এবং অপ্রকাশ্য অপরাধসমূহ ক্ষমা করে দাও। তুমিই আমার একমাত্র উপাস্য। তুমি ছাড়া কোন সত্য মাবুদ নেই

পরিশেষে…
সিজদার মধ্যে বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বেশি বেশি দোয়া করার আদেশ দিয়েছেন। তিনি বলতেন, ‘আশা করা যায় যে, সিজদাবনত অবস্থায় তোমাদের দোয়া কবুল করা হবে।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে নামাজের সিজদায় সে সকল দোয়া পড়ার তাওফিক দান করুন। যে দোয়াগুলো বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পড়তেন। আল্লাহ তাআলা উম্মতে মুহাম্মাদিকে সিজদায় বিশ্বনবির পঠিত দোয়াগুলো যথাযথভাবে পড়ার তাওফিক দান করুন। আমিন।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top