বাড়ছে গোমূত্রের চাহিদা

FB_IMG_1545829046682-6.jpg

পশ্চিমবঙ্গে বাড়ছে গোমূত্রের চাহিদা

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বাড়ছে গোমূত্রের চাহিদা। বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গে লিটার প্রতি গরুর দুধের দাম ৩৫-৪৮ রুপি। আর তার দ্বিগুণ দামে বিক্রি হচ্ছে গরুর মূত্র।

হিন্দু ধর্মে পবিত্র প্রাণী হিসেবে গরুর মূত্রও ওই ধর্মাবলম্বীদের কাছে পবিত্র পানীয়।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, আধুনিক চিকিৎসাশাস্ত্র স্বীকৃতি না দিলেও গোমূত্রকে রোগ প্রতিরোধক হিসেবেই বিশ্বাস করে দেশটির সংখ্যাগুরু হিন্দু জনগোষ্ঠীরা।

দেশটির গুজরাট, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশের মতো রাজ্যের পর কলকাতায় গত তিন-চার বছরে তুঙ্গে উঠেছে গোমূত্রের বিক্রির ব্যবসা।

এমনকি রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় শুরু হয়েছে ‘গোমূত্র চিকিৎসা ক্লিনিক’। বিক্রি হচ্ছে ‘গোমূত্র ক্যাপসুল’এবং ‘ডিস্টিল্ড’ ও ‘মেডিকেটেড’ গোমূত্রও!

চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় অন্য রাজ্যের গোশালা থেকে মূত্র নিয়ে আসার জন্য গড়ে উঠেছে মধ্যস্বত্বভোগী এজেন্টও। এরকম একজন ললিত আগরওয়াল বললেন, গত কয়েক বছরে এখানে গোমূত্রের চাহিদা পাঁচ গুণ বেড়েছে।

তিনি বলেন, মাসে প্রায় ১০ হাজার লিটার গোমূত্র বিক্রি হয় পশ্চিমবঙ্গে। এ রাজ্যে তেমন উৎপাদন নেই। তাই আমরা নাগপুর থেকে আনিয়ে দিই।

তবে রোগের প্রতিষেধক হিসেবে মূত্রের এমন ব্যবসাকে প্রতারণা বলে আখ্যায়িত করেছেন ভারতের বিশেষজ্ঞরা।

ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজে ফার্মাকোলজির শিক্ষক স্বপন জানার কথায়, গোটাটাই ভণ্ডামি। গাছগাছালি থেকে রাসায়নিক বের করে ওষুধ হতে পারে। তার ফার্মাকো কাইনেটিক্স ও ডায়নামিক্স রয়েছে। গোমূত্রের এমন কিছুই নেই।

পশ্চিমবঙ্গের একটি গোশালার কো-অর্ডিনেটর সর্বেশ্বর শর্মা বলেন, প্রতি বছর ২০-২৫ শতাংশ হারে গোমূত্রের বিক্রি বাড়ছে। কলকাতায় মাসে প্রায় তিন হাজার লিটার গোমূত্র বিক্রি হয় আমাদের।

এমকে

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top