সীতাকুণ্ডে যুবলীগ নেতা খুন, তিনজন আহত

Presentation1-137.jpg

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড পৌরসভায় ছুরিকাঘাতে যুবলীগের এক নেতা খুন হয়েছেন। কুপিয়ে আহত করা হয়েছে তিনজনকে। আজ সোমবার বিকেলে পৌরসভার ভোলাগিরি রাস্তার মাথা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, সীতাকুণ্ড পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দাউদ সম্রাট বিকেলে ভোলাগিরি রাস্তার মাথা এলাকায় একটি দোকানে বসে ছিলেন। এ সময় একদল দুর্বৃত্ত তাঁকে কুপিয়ে আহত করে। তাঁকে বাঁচাতে এগিয়ে আসার সময় উপজেলা যুবলীগের সদস্য সাজ্জাদ ও অমলকে কুপিয়ে আহত করে দুর্বৃত্তরা।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল নেওয়ার পর মারা যান যুবলীগ নেতা দাউদ সম্রাট। আহতদের চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত দাউদ ও সাজ্জাদ উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল মামুনের অনুসারী।

চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক শীলব্রত জানান, হামলায় দাউদ নামের এক যুবলীগ নেতা মারা গেছেন। চমেক হাসপাতালে আনার যুবলীগের দুই পক্ষের মধ্যে আবারও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় এক কর্মীকে ছুরিকাঘাত করে আহত করা হয়।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবলীগের সভাপতি এস এম আল-মামুন বার্তা সংস্থা ইউএনবিকে বলেন, ‘প্রকাশ্য দিবালোকে আমাদের যুবলীগ নেতা দাউদ সম্রাটকে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। আহত হয়েছেন দুজন। আমি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই।’

স্থানীয়রা জানিয়েছে, দুই মাস আগে যুবলীগ নেতা শহিদ ডাকাতের এক ভাইকে দাউদপক্ষ হত্যা করে। তার প্রতিশোধ নিতেই আজ দাউদ সম্রাটকে কুপিয়ে হত্যা করেছে শহিদপক্ষ।

এ ব্যাপারে সীতাকুণ্ড উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. শাহজাহানের কাছে জানতে চাইলে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top