টেকনাফের তিন যুবক পেটের ভেতরে করে পাচার করছিল ২২০০ ইয়াবা

Chakaria-Pic.-10.11.18-12.jpg

দিসিএম

চকরিয়ার খুটাখালী মেদাকচ্ছপিয়া জাতীয় উদ্যান এলাকা থেকে টেকনাফের তিনজন ইয়াবা কারবারিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় তাদের পাঁয়ুপথ দিয়ে একে একে বের করা হয় পলিথিনে মোড়ানো ইয়াবার ৪৪টি পুটলি। পরে গুনে পাওয়া যায় প্রায় ২২০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট। গতকাল শনিবার বেলা আড়াইটার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এই অভিযান চালায় চকরিয়া থানার পুলিশ।
গ্রেপ্তারকৃতরা পুলিশকে জানিয়েছেন, চকরিয়ার খুটাখালীর মেদাকচ্ছপিয়া এলাকার ইয়াবা কারবারি কুতুব উদ্দিনের কাছে বিক্রির জন্য এসব ইয়াবা তারা পেটের ভেতর করে বহন করে খুটাখালীতে এসেছিল। তবে পুলিশের উপস্থিতিতে পালিয়ে যায় ইয়াবার ক্রেতা কুতুব উদ্দিন। তাকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলে পুলিশ জানায়।
গ্রেপ্তারকৃত টেকনাফের তিন ইয়াবা কারবারি হলেন বাহারছড়া ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মৌলানা আবদুল মান্নানের ছেলে মো. জুনাইদ (২০), একই এলাকার মৃত মো. কাশেমের ছেলে মো. বিন আমিন (২৭) ও কবির আহমদের ছেলে আতিক উল্লাহ (১৮)।
চকরিয়া থানার ওসি মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘টেকনাফের এই তিন ইয়াবা কারবারি পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে, তারা এসব ইয়াবা খুটাখালীর ইয়াবা কারবারি জনৈক কুতুব উদ্দিনের কাছে বিক্রির জন্য নিয়ে আসে। এ ব্যাপারে কুতুব উদ্দিনসহ চারজনের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রুজু করা হচ্ছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top