সংলাপে সুচিন্তিত মতামত আসবে, বিশ্বাস ফখরুলের

Screenshot_2018-11-07-14-52-40-905_com.android.chrome.jpg
আজ বুধবার সকালে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সমাধিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

দিসিএম ডেস্ক

সরকার গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা রাখতে চাইলে, যদি একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে চায় তাহলে সাত দফা দাবি নিয়ে একটি সুচিন্তিত মতামত আসবে বলে বিশ্বাস করেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ বুধবার সকালে ৭ নভেম্বরকে জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস হিসেবে পালন করে আসা বিএনপি সকাল ১০টায় দলের প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সমাধি জিয়ারত করে। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ও নেতাকর্মীরা মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে দোয়া ও মোনাজাত করেন নেতাকর্মীরা।

জিয়ারত শেষে সংলাপ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের সঙ্গে এসব কথা বলেন বিএনপির মহাসচিব। এখান থেকেই তিনি সংলাপে অংশ নেওয়ার জন্য সরাসরি গণভবনে যান।

এ সময় মির্জা ফখরুল বলেন, ‘দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আমরা যে আন্দোলন শুরু করেছি, সে আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মাধ্যমে সমগ্র জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠিত করতে হবে, বিজয়কে সুসংহত করতে চাই।’আজকের সংলাপ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আলোচনা হবে, আলোচনার পরে সব জানতে পারবেন।

’বিএনপির নেতাকর্মীদের নামে ‘গায়েবি’ মামলার তালিকা দেওয়া হবে কি না এমন প্রশ্নের উত্তরে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সবই করা হবে। আমাদের যে সাত দফা দাবি, এগুলো তুলে ধরব। এখন পুরো জিনিসটা নির্ভর করবে সরকারের ওপরে। আমরা বারবার বলে এসেছি, সরকার যদি সত্যিকার অর্থেই দেশে একটি গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা রাখতে চায়, একই সঙ্গে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে চায়, জনগণের অধিকারকে ফিরিয়ে দিতে চায়, নিশ্চয়ই এ দাবিগুলো নিয়ে একটি সুচিন্তিত মতামত আসবে বলে মনে করি, বিশ্বাস করি।

’এ সময় সেখানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খানসহ ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, মহিলা দল, শ্রমিক দলের কয়েকশ নেতাকর্মী।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top