সংরক্ষিত মহিলাসহ ৯ কাউন্সিলর নতুন নির্বাচিত

Screenshot_2018-07-26-20-47-01-574_com.facebook.katana.jpg

দিসিএম 

কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনে ১২টি সাধারণ ওয়ার্ড ও ৪টি সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্ধিপূর্ণ নির্বাচনের মধ্যদিয়ে ১২ জন সাধারণ কাউন্সিলর ও ৪ জন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন। এবারের নির্বাচনে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৬৪ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৭ জন প্রতিদ্বন্ধিতা করেছিলেন।

বুধবার (২৫ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত এইসব ওয়ার্ডে প্রবল বৃষ্টিতে ভোটগ্রহণ হয়। পরে ভোট গণনা শেষে নির্বাচিত প্রার্থীদের বেসরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা করা হয়। রাত ১০টার মধ্যে সকল কাউন্সিলর প্রার্থীদের নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোজাম্মেল হোসেন।

১২টি সাধারণ কাউন্সিলর ও ৪টি সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদের মধ্যে ৭ জন বর্তমান সাধারণ কাউ্িন্সলর আবারও নির্বাচিত হয়েছেন। তবে বর্তমান মহিলা কাউন্সিলরদের মধ্যে কেউ আর নির্বাচিত হয়ে আসতে পারেননি। এদের মধ্যে ৩নং ওয়ার্ডের মনজুমন আরা অসুস্থতা জনিত কারণে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতা করেননি। অন্য ৩টি ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলরদের মধ্যে কহিনুর আক্তার ছাড়া অন্য ২ জন হুমায়রা বেগম ও চম্পা উদ্দিন প্রতিদ্বন্ধিতাতেই আসতে পারেননি।

সাধারণ কাউন্সিলরদের মধ্যে ৪নং, ৫নং, ১০ নং  ১১নং ও ১২নং ওয়ার্ডে নতুন কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন। বর্তমান কাউন্সিলরদের মধ্যে ১১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রফিকুল ইসলাম মেয়রপ্রার্থী হয়ে প্রতিদ্বন্ধিতা করে হেরে গেছেন। ৪নং ওয়ার্ডে সিরাজুল হক, ৫নং ওয়ার্ডে সালামত উল্লাহ বাবুল  এবং ১০ নং নোবেল  প্রতিদ্বন্ধিতাতেই আসতে পারেননি। ১২নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর ও জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক জিসান উদ্দিন এবার নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেননি।

বিস্তারিত ফলাফল

১নং ওয়ার্ড: এই ওয়ার্ডে বিশাল ভোটের ব্যবধানে আবারও কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন  এসআইএম আকতার কামাল কুতুবী (পাঞ্জাবী)। তিনি পেয়েছেন ৩ হাজার ১১৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি আতিকুল্লাহ কোম্পানী (ডালিম) পেয়েছেন ১ হাজার ৬৯৮ ভোট।

২নং ওয়ার্ড: এই ওয়ার্ডেও তীব্র প্রতিদ্বন্ধিপূর্ণ নির্বাচনে টানা দ্বিতীয়বারের মতো কাউ্িন্সলর নির্বাচিত হয়েছেন মিজানুর রহমান (পানির বোতল)। তিনি পেয়েছেন ১ হাজার ৬৮৯ ভোট । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি জসিম উদ্দিন (টেবিল ল্যাম্প) পেয়েছেন ১ হাজার ৩৩ ভোট।

৩নং ওয়ার্ড:  এই ওয়ার্ডে আবারও কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন জেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান ভারপ্রাপ্ত পৌর মেয়র মাহবুবুর রহমান চৌধুরী মাবু। তিনি টানা তৃতীয়বারের মতো কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ২ হাজার ৯১৯ ভোট। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্ধি  আমিন ইসলাম মুকুল পেয়েছেন ১ হাজার ২৫২ ভোট।

৪নং ওয়ার্ড: এই  ওয়ার্ড থেকে এক হাজার ৮৩৭ ভোট পেয়ে প্রথমবারের মতো কাউন্সিলার হয়েছেন দিদারুল ইসলাম। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মিজানুল করিম পেয়েছেন ৭৮৪ ভোট।

৫নং ওয়ার্ড: ৫নং ওয়ার্ডে প্রথমবারের মতো কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন  সাহাব উদ্দিন সিকদার (উটপাখি)। তিনি পেয়েছেন ১ হাজার ৮১৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি ছিলেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা গোলাম আরিফ লিটন পেয়েছেন (টেবিল লাইট)। তিনি পান ১ হাজার ১৭৩ ভোট।

৬নং ওয়ার্ড:  ৬ নম্বর ওয়ার্ড থেকে ওমর সিদ্দিক লালু বিশাল ব্যাবধানে  কাউন্সিলার নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি   ২ হাজার ২০৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ফেরদৌস চৌধুরী পেয়েছেন ৯১৯ ভোট।

৭নং ওয়ার্ড:  তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বীতা হয়েছে  ৭ নম্বর ওয়ার্ডে । এই ওয়ার্ডে মাত্র ১৪ ভোটে বিজয়ী হয়েছেন আশরাফুল হুদা সিদ্দিকী জামশেদ। তার প্রাপ্ত ভোট ২ হাজার ৩৪৬ ভোট। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জাফর আলম পেয়েছেন ২ হাজার ৩৩২ ভোট।

৮নং ওয়ার্ড: ৮ নম্বর ওয়ার্ড থেকে ২ হাজার ২০২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে রাজবিহারী দাশ। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বেলাল হোসেন পেয়েছেন এক হাজার ২৮৫ ভোট।

৯নং ওয়ার্ড: ৯ নম্বর ওয়ার্ড থেকে বিজয়ী হয়েছেন হেলাল উদ্দিন। তার প্রাপ্ত ভোট ২ হাজার ১১৯। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আবু ওবায়েদ্দীন নাছের পেয়েছেন ৯৫১ ভোট।

১০নং ওয়ার্ড: ১০নং ওয়ার্ডে প্রথমবারের মতো কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছে তরুণ আওয়ামী লীগ নেতা সালাহ উদ্দিন সেতু। তিনি পেয়েছেন ২ হাজার ৩৩১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি কফিল উদ্দিন পেয়েছেন ২ হাজার ৬৪ ভোট।

১১নং ওয়ার্ড: এই ওয়ার্ডে নতুন ভাবে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন চরমোনাই পীরের রাজনৈতিক দল ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের নেতা নুর মোহাম্মদ মাঝু। তার প্রাপ্ত ভোট ১০৭৩। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো: সেলিম রেজা পেয়েছেন ৭০৯ ভোট। এই ওয়ার্ডে দীর্ঘদিন ধরে কাউন্সিলর ছিলেন এবারের নির্বাচনে বিএনপি মনোনিত মেয়রপ্রার্থী রফিকুল ইসলাম।

১২নং ওয়ার্ড: এই ওয়ার্ডে নতুন ভাবে বিশাল ব্যবধানে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা কাজী মোরশেদ আহামদ বাবু। তিনি পেয়েছেন ৩ হাজার ৮৫ ভোট। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্ধি নূরুল ইসলাম দানু পেয়েছেন এক হাজার ৪১৫ ভোট

সংরক্ষিত মহিলা

সংরক্ষিত- ১ (১, ২ ও ৩) নং ওয়ার্ড: এই ওয়ার্ডে নির্বাচিত হয়েছেন কক্সবাজার পৌর আওয়ামী লীগের মহিলা সম্পাদিকা শাহেনা আকতার পাখি। তিনি পেয়েছেন ৫ হাজার ৯৬১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি ছিলেন ফাতেমা বেগম (জবা ফুল)। তিনি পান ৩ হাজার ৮৪৩ ভোট। এছাড়াও এই ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর হুমায়রা বেগম পেয়েছেন ২ হাজার ২৩০ ভোট।

সংরক্ষিত-২ সরংক্ষিত ওয়ার্ড-২ থেকে বিজয়ী হয়েছেন ইয়াছমিন আক্তার। তার প্রাপ্ত ভোট ৭ হাজার ৮৯। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী চম্পা উদ্দীন পেয়েছেন ৫ হাজার ৬২৮।

সংরক্ষিত-৩ (৭, ৮ ও ৯) সংরক্ষিত ওয়ার্ড ৩ থেকে বিজয়ী হয়েছেন জাহেদা আকতার। তিনি পেয়েছেন ৫ হাজার ৯১৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী দীপ্তি শর্মা পেয়েছেন ২ হাজার ৯৩২।

সংরক্ষিত-৪ (১০, ১১ ও ১২) নং ওয়ার্ড: এই ওয়ার্ডে নতুন ভাবে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন জাতীয়তাবাদী মহিলা দল নেত্রী ও সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান নাসিমা আকতার বকুল (টেলিফোন) । ৩ হাজার ৮৪৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন  বকুল। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী কোহিনুর ইসলাম পেয়েছেন ৩ হাজার ৩১২ ভোট।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top