কোন কেন্দ্রে কত ভোটার

unnamed-8.jpg

দিসিএম

কক্সবাজার পৌরসভার ১২টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার ৮৩ হাজার ৭২৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছে ৪৪ হাজার ৩৭৩ জন এবং নারী ভোটার ৩৯ হাজার ৩৫৫ জন।
জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্র জানিয়েছে, আগামী ২৫ জুলাই ১২টি ওয়ার্ডের মোট ৩৯টি কেন্দ্রে একযোগে ভোটগ্রহন করা হবে। ওইসব কেন্দ্রে মোট ভোট কক্ষ থাকবে ২২৪টি। অস্থায়ী কক্ষ থাকবে ১১টি। কুতুবদিয়া পাড়া ও নাজিরাটেক নিয়ে গঠিত ১ নম্বর ওয়ার্ডে ৪টি কেন্দ্রে মোট ভোটার ৭ হাজার ৮৬১ জন। পুরুষ ভোটার ৩ হাজার ৮৯২জন এবং নারী ভোটার ৩ হাজার ৯৬৯ জন। মোট ভোট কক্ষের সংখ্যা ২১। কুতুবদিয়া পাড়া মুহিউচ্ছুন্নাহ দাখিল মাদ্রাসায় ভোট দেবে১ হাজার ২৯২ জন পুরুষ এবং ১ হাজার ৩৬৯ জন নারী ভোটার। এখানে মোট ভোট কক্ষের সংখ্যা ৭টি। ইসলামিয়া রিসার্চ সেন্টারে ভোট দেবে১হাজার ৪৫০ জন পুরুষ এবং ১ হাজার ৪৫০ জন নারী ভোটার। ভোট কক্ষের সংখ্যা ৮টি। দক্ষিণ কুতুবদিয়া পাড়া ইসলামিয়া দারুস সুন্নাহ মাদ্রাসায় ১ হাজার ১৫০ জন পুরুষ ভোটার ভোট দিবে। ভোট কক্ষ স্থাপন করা হবে ৩টি। কুতুবদিয়া পাড়া মুক্তি স্কুলে ভোট দেবে১ হাজার ১৫০ জন নারী ভোটার। এই কেন্দ্রে ভোট কক্ষ ৩টি।
২ নম্বর ওয়ার্ডে ৪টি কেন্দ্রে মোট ভোটার হচ্ছে ৮ হাজার ৮৯ জন। যার পুরুষ ভোটার ৪ হাজার ৩৪০ জন এবং নারী ভোটার ৩ হাজার ৭৪৯ জন। মোট ভোট কক্ষের সংখ্যা হচ্ছে ২১টি। কেন্দ্রগুলোর মধ্যে উত্তর নুনিয়াছড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে উত্তর নুনিয়াছড়ার ভোট দেবে১হাজার ৬৬৭ জন পুরুষ ভোটার। ভোট কক্ষ ৪টি। শাহ সুফী হযরত আলী হোসেন ফকির (রহঃ) সুন্নিয়া মাদ্রাসায় ভোট দেবেউত্তর নুনিয়াছড়ার ১ হাজার ৫৩৯ জন নারী ভোটার। ভোট কক্ষ ৪টি। বিমানবন্দর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পশ্চিম নতুন বাহারছড়ার ১ হাজার ৬১১ জন জন পুরুষ ও ১ হাজার ৩৭৪ জন নারী ভোটার ভোট দিবে। ভোট কক্ষ স্থাপন করা হবে ৮টি। মধ্যম নুনিয়ার ছড়ার ১ হাজার ৬২ জন পুরুষ ও ৮৩৬ জন নারী ভোটার ভোট দেবেমাদ্রাসা-এ তৈয়্যবিয়া তাহেরিয়া সুন্নিয়া আলিম মাদ্রাসায়। এই কেন্দ্রে ভোট কক্ষ হবে ৫টি।
৩ নম্বর ওয়ার্ডে ৩টি কেন্দ্রে মোট ভোটার হচ্ছে ৫ হাজার ৯৪২ জন। যার পুরুষ ভোটার ৩ হাজার ৮৮৪ জন এবং নারী ভোটার ২ হাজার ৫৮ জন। মোট ভোট কক্ষ হচ্ছে ১৫টি। পূর্ব নতুন বাহারছড়ার ৫৪৭ জন পুরুষ এবং ৫০৬ জন নারী ভোটার ভোট দেবেসৈকত বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে। এখানে মোট ভোট কক্ষের সংখ্যা ৩টি। কস্তুরাঘাট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বদর মোকাম, সিনেমা রোড (পশ্চিম), সিনেমা রোড (পূর্ব), এন্ডারসন রোড (উত্তর) ও এন্ডারসন রোড (দক্ষিণ) এর ভোটরগন ভোট দিবে। যার ১ হাজার ২৭৯ জন পুরুষ এবং ৬৯৯ জন নারী ভোটার। ভোট কক্ষের সংখ্যা ৫টি। পুরান পান বাজার (পশ্চিম, পূর্ব), পুরান পান বাজার ও মাছ বাজার (পশ্চিম), আইবিপি রোড (পূর্ব, পশ্চিম), মাছ বাজার, বড় বাজার ও পূর্ব বাজারঘাটার এলাকা নিয়ে গঠিত উমেদিয়া জামেয়া ইসলামীয়া কেন্দ্র। এখানে ভোটার হচ্ছে ২ হাজার ৫৮ জন পুরুষ ও ৮৫৩ জন নারী। ভোট কক্ষ স্থাপন করা হবে ৭ টি।
৪ নম্বর ওয়ার্ডে ৪টি কেন্দ্রে মোট ভোটার হচ্ছে ৭ হাজার ৪৩১ জন। পুরুষ ভোটার ৩ হাজার ৭৮৫ জন এবং নারী ভোটার ৩ হাজার ৬৪৬ জন। মোট ভোট কক্ষ হচ্ছে ২১টি। পেশকার পাড়ার ভোটারা ভোট দেবেপেশকারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কাম সাইক্লোন সেন্টারে। এখানে ভোট দেবে ৯০০ জন পুরুষ এবং ৮৬৩ জন নারী। ভোট কক্ষের সংখ্যা ৫টি। বার্মিজ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোট দেবেফুলবাগ সড়ক, চাউলবাজার সড়ক, আচিমং পেশকার পাড়া, পশ্চিম টেকপাড়া, ম্যালেরিয়া অফিস রোডের ১হাজার ২৬৫ জন পুরুষ এবং ১ হাজার ১৮৩ জন নারী ভোটার। ভোট কক্ষের সংখ্যা ৭টি। টেকপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মূল ভবন ও নতুন ভবনে কেন্দ্র করা হয়েছে দুটি। মূল ভবনে ৪টি ভোট কক্ষে ১ হাজার ৬২০ জন এবং নতুন ভবনে ৫টি ভোট কক্ষে ১ হাজার ৬০০ ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগ করবে। সুজাউ সওদাগর পাড়া, পূর্ব টেকপাড়া, মধ্যম টেকপাড়া ও হাঙ্গরপাড়ার ভোটারগণ ভোট দিবে।
৫ নম্বর ওয়ার্ডে ৩ টি কেন্দ্রে মোট ভোটার হচ্ছে ৬ হাজার ৬২৫ জন। পুরুষ ভোটার হচ্ছে ৩ হাজার ৩২৩ জন এবং নারী ভোটার ৩ হাজার ৩০২ জন। মোট ভোট কক্ষ হচ্ছে ১৭ টি। উত্তর তারাবনিয়ার ছড়া ও উত্তর রুমালিয়ার ছড়া (পশ্চিম) এর ১ হাজার ১০৯ জন পুরুষ এবং ১ হাজার ৯৮ জন নারী ভোটার ভোট দেবেশহীদ তিতুমীর ইনস্টিটিউটে।। এখানে ভোট কক্ষের সংখ্যা ৬ টি। আল-মোস্তফা নূরানী মাদ্রাসা ও হোসানিয়া হেফজখানা ও এতিমখানায় উত্তর রূমালিয়ারছড়া (পূর্ব) গোদার পাড়া ও চৌধুরী পাড়ার ভোট দেবে ১ হাজার ৪২২ জন পুরুষ এবং ১ হাজার ৩৮১ জন নারী ভোটার। ভোট কক্ষের সংখ্যা ৪টি। এস.এম.পাড়ার ৭৯২ জন পুরুষ ও ৮২৩ জন নারী ভোটার ভোট দেবেআমির হোসাইন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। ভোট কক্ষ স্থাপন করা হবে ৪টি।
৬ নম্বর ওয়ার্ডে ৪টি কেন্দ্রে মোট ভোটার হচ্ছে ৭ হাজার ৪৭৪ জন। পুরুষ ভোটার ৩ হাজার ৮৮৪ জন এবং নারী ভোটার ৩ হাজার ৫৯০ জন। মোট ভোট কক্ষ হচ্ছে ২১টি। নাপ্পাঞ্জা পাড়া, সাহিত্যিকা পল্লী ও বিডিআর ক্যাম্পের ১ হাজার ২১৫ জন পুরুষ এবং ৯৬৬ জন নারী ভোটার ভোট দেবেসাহিত্যিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে। এখানে মোট ভোট কক্ষের সংখ্যা ৬টি। হাশেমিয়া কামিল মাদ্রাসায় দক্ষিণ রুমালিয়ার ছড়া (পূর্ব), ফল্লাইন্যা কাটা ও মাটিয়াতলীর ৯৩৩ জন পুরুষ এবং ১ হাজার ৪ জন নারী ভোটার ভোট দিবে। ভোট কক্ষের সংখ্যা ৫টি। সিকদার পাড়া, মালি পাড়া, পশ্চিম বড়–য়া পাড়া ও পেতা সওদাগর পাড়ার ১ হাজার ৩৫ জন পুরুষ ভোটার এবং ৯৮৬ জন নারী ভোটার ভোট দেবেমধ্য ঝিলংজা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। ভোট কক্ষ স্থাপন করা হবে ৬টি। পূর্ব বড়–য়া পাড়া, সর্দার পাড়া, উত্তর ডিককুল ও হাজী পাড়ার ৭০১ জন পুরুষ ও ৬৩৪ নারী ভোটার ভোট দেবেকক্সবাজার হাভার্ড কলেজে। এই কেন্দ্রে ভোট কক্ষ ৪টি।
৭ নম্বর ওয়ার্ডে ৪টি কেন্দ্রে মোট ভোটার হচ্ছে ৮ হাজার ৫০১ জন। পুরুষ ভোটার ৪ হাজার ২১৭ জন এবং নারী ভোটার ৩ হাজার ৭৪৪ জন। মোট ভোট কক্ষ হচ্ছে ২৩টি। আবু বক্কর সিদ্দিক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৫টি ভোট কক্ষে এবিসি ঘোণা ও টেকনাফ পাহাড়ের ৮৮৫ জন পুরুষ ও ৯১০ জন নারী ভোটার ভোট দিবে। টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজে দক্ষিণ রুমালিয়ারছড়া ও দক্ষিণ তারবনিয়ারছড়ার ১ হাজার ৪১ জন পুরুষ এবং ১ হাজার ৪ জন নারী ভোটার ভোট দিবে। এখানে মোট ভোট কক্ষের সংখ্যা ৫টি। পাহাড়তলী, ইছুলের ঘোণা ও ইসলামপুরের ১৩৭০ পুরুষ ও ১৪৩৯ জন নারী ভোটার ভোট দেবেরাহমানিয়া মাদ্রাসা ও হেফজখানার ৮টি বুথে। দক্ষিণ টেকপাড়া, সি এন্ড বি কলোনী ও পশ্চিম পাহাড়তলীর ৯২১ জন পুরুষ ও ৯৩১ জন নারী ভোটার ভোট দেবেডি ওয়ার্ড সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫টি ভোট কক্ষে।
৮ নম্বর ওয়ার্ডে ৩টি কেন্দ্রে মোট ভোটার হচ্ছে ৬ হাজার ৫৮০ জন। পুরুষ ভোটার ৩ হাজার ৩৫৫ জন এবং নারী ভোটার ৩ হাজার ২২৫ জন। মোট ভোট কক্ষ হচ্ছে ১৮টি। অক্সফোর্ড স্কুলে জাদিরাম পাহাড়, গোলদীঘির উত্তর ও পূর্ব পাড়, ঘোণা পাড়ার ১১৭৫ জন পুরুষ ও ১১১২ জন নারী ভোটার ভোট দিবে। ভোট কক্ষ ৬টি। জাদিরাম পাহাড়, বইল্ল্যাপাড়া, বায়তুশ শরফ এলাকা, পূর্ব বাজারঘাটা ও বৈদ্যেরঘোণার নারী পুরুষরা ভোট দেবেবায়তুশ জব্বারিয়া একাডেমীর দুটি কেন্দ্রে। এখানে এক কেন্দ্রে শুধু পুরুষ ২১৮০ জন ও নারী ২১১৩ জন। মোট ভোট কক্ষ ১২টি।
৯ নম্বর ওয়ার্ডে দুটি কেন্দ্রে ৩২১৫ জন পুরুষ ও ৩১৯৭ জন নারীসহ মোট ভোটার ৬৪১২ জন। ঘোনার পাড়া ও খাজা মঞ্জিল এলাকার ১৩০৮ জন পুরুষ ও ১৩১৩ জন নারী ভোটার ভোট দেবেআল আমিন একাডেমী কেন্দ্রের ৭টি ভোট কক্ষে। কক্সবাজার সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের ১০টি বুথে ভোট দেবে গোলদীঘির পশ্চিম পাড়, মোহাজের পাড়া, ঘোনারপাড়া, আইবিপি মাঠ পূর্বের ১৯০৭ জন পুরুষ ও ১৮৮৪ জন নারী ভোটার।
১০ নম্বর ওয়ার্ডের ৩টি ভোট কেন্দ্রে মোট ভোটার ৬৯১৪ জন। যার ৩৭৬৬ জন পুরুষ ও ৩১৪৮ জন নারী। পৌর প্রিপ্যারেটরী উচ্চ বিদ্যালয়ে পুরুষ মহিলা আলাদা দুটি কেন্দ্র করা হয়েছে। দুটিতে ভোট কক্ষ হচ্ছে ১২টি। কাছারী পাহাড়, আইবিপি মাঠ (পশ্চিম), অফিসার্স কলোনী, স্টেডিয়াম পাগা ও মোহাজের পাড়ার ২২৫৫ জন পুরুষ ও ১৮৩৯ জন নারী ভোটার রয়েছে এখানে। উত্তর বাহারছড়া, মধ্যম-দক্ষিণ বাহারছড়র ১৫১১ জন পুরুষ ও ১৩০৯ জন নারী ভোটার ভোট দেবে বাহারছড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৭টি ভোট কক্ষে।
১১ নম্বর ওয়ার্ডের ৩ কেন্দ্রে মোট ভোটার ৫ হাজার ৫৯০ জন। যার মধ্যে ৩ হাজার ৬৯ জন পুরুষ ও ২ হাজার ৫২১ জন নারী ভোটার। কক্সবাজার কেজি এন্ড মডেল হাইস্কুল কেন্দ্রে ঝাউতলা গাড়ী মাঠের ১০১৭ জন পুরুষ ও ৮৭৮ জন নারী ভোটার তাদের ভোট দেবেন। এই কেন্দ্রে ভোট কক্ষ ৫টি। পশ্চিম, দক্ষিণ ও উত্তর বাহারছড়ার ২০৫২ জন পুরুষ ও ১৬৪৩ জন নারী ভোটার ভোট দেবে দুই ভোটকেন্দ্র প্রাইমারি ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (পিটিআই) সংলগ্ন পরীক্ষণ বিদ্যালয় ও প্রাইমারি ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (পিটিআই) প্রশিক্ষণ শাখায়। সেখানে মোট কক্ষ ১০টি। তিনটি ভোট কেন্দ্রে ভোটগ্রহন করা হবে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং সিস্টেম (ইভিএম) পদ্ধতিতে।
১২ নম্বর ওয়ার্ডে ২টি কেন্দ্রের ১৬টি ভোটে ৩৬৪৩ জন পুরুষ ও ২৬৬৬ জন নারী সহ মোট ৬৩০৯ জন ভোটার। সৈকতপাড়া লাইট হাউজপাড়া, ফাতের ঘোনা ও উত্তর কলাতলী চরপাড়ার ১৯২৪ জন পুরুষ ও ১২২৯ জন নারী ভোটার ভোট দেবে লাইট হাউস দারুল উলুম মাদ্রাসার ৮টি ভোট কক্ষে। দক্ষিণ কলাতলী, আদর্শ গ্রাম ও আনবিক শক্তি কমিশন এলাকার ১৭১৯ জন পুরুষ ও ১৪৩৭ জন নারী ভোটার ভোট দেবে কলাতলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। এখানে ভোট কক্ষ ৮টি।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top