কাশ্মীরে বিয়ের নিমন্ত্রণপত্রে নারীদের হিজাব পরে আসার অনুরোধ

199032_1.jpg

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

: ভারত অধিকৃত গোলযোগপূর্ণ জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যে এখন গ্রীষ্মকাল এবং এই সময়টিকে এখানে বিয়ের মৌসুম বলা হয়।

সম্প্রতি এখানকার অনেক বিবাহ অনুষ্ঠানের জন্য আমন্ত্রিত অতিথিদের জন্য ইস্যু করা নিমন্ত্রণ কার্ডে একটি নতুন নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। এসব নিমন্ত্রণপত্রে নারী অতিথিদের উদ্দেশ্য বলা হয়েছে: ‘দয়া করে হিজাব পরিধান করুন।’

অনেক হোস্ট তাদের আমন্ত্রণ কার্ডে বিশেষ নোটে ‘ইসলামিক পোশাক রীতি’ মেনে চলতে নারীদেরকে অনুরোধ করেছেন।

গ্রীষ্মকালীন রাজধানী শ্রীনগরের বিবাহের একটি আমন্ত্রণ কার্ডে লেখা হয়েছে, ‘নারীদের তাদের মাথায় হিজাব পরে অনুষ্ঠানে আসার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। কারণ এটি হোস্টের (অতিথিসেবক) সম্মানকে বৃদ্ধি করবে।’

সরকার কিংবা কোনো ইসলামপন্থী দল থেকে এই ধরনের আদেশ জারি করা হয়নি। হোস্টরা বলছেন তারা নিজেরাই এই ধরনের নিয়ম মেনে চলছেন যাতে বিয়ের অনুষ্ঠানে অপ্রীতিকর কোনো ঘটনা না ঘটে।

একজন হোস্ট জানান, বিয়ের অনুষ্ঠানে নারী গেস্টদের অর্ধ-নগ্ন পোশাক পরিধান এবং কুরুচিপূর্ণ চুলের স্ট্যাইল দেখে তিনি বিরক্ত।

তিনি বলেন, ‘এসব ফ্যাশন ইসলামিক নীতির সঙ্গে মেলে না। এর মাধ্যমে তারা কেবল অপ্রীতিকর কোনো কিছুকেই আমন্ত্রণ জানাচ্ছে।’

তবে, অনেক নারী অধিকার কর্মীরা এই নিয়মের সমালোচনা করেছেন। বেশিরভাগ রক্ষণশীল মুসলিম-সমাজে বিয়ের অনুষ্ঠানে নারীদের পোশাকের ওপর এটি অযৌক্তিক হস্তক্ষেপ বলে অনেকে মনে করছেন।

জম্মু ও কাশ্মীর ভারতের একমাত্র মুসলিম শাসিত প্রদেশ এবং বর্তমানে ভারতীয় ফেডারেল সরকার দ্বারা শাসিত হচ্ছে, যা উগ্রপন্থী হিন্দু ভারতীয় জনতার নিয়ন্ত্রণে।

সূত্র: এশিয়া টাইমস

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top