চকরিয়ায় বউ আনতে গিয়ে কনেপক্ষের হাতে বরযাত্রী আটক!

putul-biye.jpg

দিসিএম

চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ত্রিশজন বরযাত্রীকে মারধর করে আটকে রাখার খবর পাওয়া গেছে।
গত বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে চট্টগ্রামের লোহাগড়া উপজেলাধীন পদুয়া ইউনিয়ন থেকে বউ আনতে গিয়ে পরদিন শুক্রবার নাগাদ তাদের ছেড়ে দেননি।
আটকের সত্যতা জানান ডুলাহাজারা ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জসিম উদ্দিন। তিনি বলেন স্থানীয় রংমহল এলাকার ফজল করিমের পুত্রের সাথে পদুয়ার এক পরিবারের কন্যার সাথে শুভ বিবাহের চূড়ান্ত হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে দুটি হায়েসে ত্রিশজন বরযাত্রী নিয়ে বউ আনতে ডুলাহাজারা থেকে পদুয়া ইউনিয়নে যায়। বরযাত্রী কনের বাড়িতে অবস্থানকালে কনেপক্ষ ও বরপক্ষের বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে মারধর ঘটনা ঘটে। এনিয়ে বিয়ে ভঙ্গ করার সিদ্ধান্ত নেন কনেপক্ষ।
এ ব্যাপারে জানতে লোহাগড়া থানার ওসিকে ফোন করা হলে তিনি একটি প্রোগ্রামে আছেন এবং প্রোগ্রাম শেষে কথা বলবেন বলে জানান।
পদুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জহির উদ্দিন বলেন, বৃহস্পতিবার কনের বাড়িতে বর আগমনের পর বিয়ের আইনি কার্যক্রম শেষে খাওয়াদাওয়া সম্পন্ন হয়। কনে নিয়ে চলে যাওয়ার সময় উভয় পক্ষ বাকবিতণ্ডায় রূপ নেয়। একপর্যায়ে বরে ভাই কনে পক্ষের লোকের গায়ে হাত তুলেন। এ নিয়ে কনে পক্ষ বিয়ে ভেঙ্গে ফেলার সিদ্ধান্ত নেন।
তিনি আরো বলেন, বরযাত্রী আটক রাখা হয়নি তবে বর ও তার কয়েকজন স্বজনকে কনের আত্মীয়ের বাড়িতে রাখা হয়েছে। বর পক্ষের জনপ্রতিনিধিদের খবর দেওয়া হয়েছে তারা আসলে হিসাব নিকাশ চূড়ান্ত করে বিয়ে ভঙ্গ করা হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top