ভোলায় পাসপোর্ট করতে গিয়ে রোহিঙ্গা নারীসহ আটক ৩

unnamed-1.jpg
সোমবার (০৩ জুলাই) দুপুরে পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তরা তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

আটক বাকি দুইজন হলেন- ভোলার লালমোহন উপজেলার রমাগঞ্জ ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ফিরোজ ও তার স্ত্রী হালিমা।

পুলিশ জানায়, দুপুরে ফিরোজ লালমোহন উপজেলার রমাগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. গোলাম মোস্তফা ও সচিব নিরব হোসাইনের স্বাক্ষরিত একটি জন্ম নিবন্ধন সনদসহ আনোয়ারা বেগমকে তার শালী পরিচয়ে ভোলা পাসপোর্ট অফিসে পাসপোর্ট করতে নিয়ে যান। এসময় পাসপোর্ট অফিসের লোকজনের সন্দেহ হলে তারা পুলিশে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের আটক করে।

ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ছগির মিঞা বলেন, আমরা আনোয়ারা নামে এক নারীকে রোহিঙ্গা সন্দেহে উদ্ধার করেছি। এসময় তাকে সঙ্গে করে নিয়ে আসা মো. ফিরোজ ও তার স্ত্রী হালিমা খাতুনকেও আটক করা হয়। এদের মধ্যে ফিরোজ ও হালিমার বাড়ি বাংলাদেশে এতে কোনো সন্দেহ নেই। তবে আনোয়ারা বেগম রোহিঙ্গা কী না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। রোহিঙ্গা প্রমাণ হলে এদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
আপনার মন্তব্য লিখুন
Top