রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে সব ধরনের সহযোগিতা করবে জাতিসংঘ: মহাসচিব

images-2-1.jpeg

নিজস্ব প্রতিনিধি

কক্সবাজার: মায়ানমার সেনাবাহিনী ও বৌদ্ধ মিলিশিয়াদের হত্যাযজ্ঞের মুখে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ভূমিকা সন্তোষজনক নয়, তাদের প্রত্যাবসন ও মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করতে সব ধরনের সহযোগিতা করবে জাতিসংঘ বলে জানিয়েছেন মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস।

সোমবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস ও বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম উখিয়ার কুতুপালংয়ে বিভিন্ন রোহিঙ্গা শিবির সরজমিনে প্রত্যক্ষ করেন। তারা নিপীড়িত রোহিঙ্গাদের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ কথা বলেন। এসময় তারা পাঁয়ে হেঁটে রোহিঙ্গাদের অস্থায়ী বাড়িঘর দেখেন এবং তাদের খোঁজ-খবর নেন। এছাড়াও জাতিসংঘ মহাসচিব ভিন্ন সাহায্য সংস্থার কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।

রোহিঙ্গা পরিস্থিতি নিজ চোখে দেখে সংবাদ সম্মেলনে জাতিসংঘ মহাসচিব বলেন, গত ১১ মাস ধরে বিভিন্ন মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের উপর মায়ানমারের চালানো নিপীড়নের কথা শুনছিলাম। আজ নিজে সরাসরি রোহিঙ্গাদের উপর মিয়ানমারের নিপীড়নের কথা শুনলাম।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের শরীরে এখনো মায়ানমারের সেনাদের চালানো নির্যাতনের ভয়াবহ চিহ্ন আছে। রোহিঙ্গারা তাদের উপর চালানো নির্যাতনের যেই বর্ননা দিয়েছে তাতে আমার হৃদয় ভেঙে গেছে।

গুতেরেস বলেন, সব অধিকার দিয়েই রোহিঙ্গাদের মায়ানমারে ফেরত পাঠাতে চান তারা। এই জন্য বিশ্বসম্প্রদায়কে আরও জোরালো ভূমি রাখার আহ্বান জানান তিনি।

রোহিঙ্গাদের সহসাই ফেরত পাঠানো সম্ভব হবে না বলে মনে করছেন জাতিসংঘ মহাসচিব। রোহিঙ্গাদের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করে তাদের মায়ানমারে ফেরত পাঠানো সময়সাপেক্ষ বলে মনে করের তিনি।

গুতেরেস বলেন, রোহিঙ্গাদের বিশাল জনগোষ্ঠীকে আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ যেই মানবতা দেখিয়েছে, তা বিশ্বে নজিরবিহীন ঘটনা। রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে জাতিসংঘ সবসময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে।

এদিকে বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম বলেন, রোহিঙ্গাদের কষ্ট আর তাদের অসহায়ত্ব দেখে নিজেকেই একজন রোহিঙ্গা মনে করছেন। নিজেকে রোহিঙ্গা মনে করেই তিনি রোহিঙ্গাদের কষ্ট অনুভব করছেন।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের সব ধরনের সহায়তা দেয়ার জন্য বিশ্ব ব্যাংক সব সময় প্রস্তুত। রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশের পাশে থাকবে বলে অঙ্গীকার করেন কিম।

এরআগে রোহিঙ্গাদের দেখতে সকাল ৯টায় বাংলাদেশ বিমানের একটি বিশেষ ফ্লাইটে জাতিসংঘ মহাসচিব ও বিশ্ব ব্যাংক প্রেসিডেট কক্সবাজারে পৌঁছান। এসময় তাদের সঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমদু আলীসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা রয়েছেন।

কক্সবাজার বিমানবন্দর থেকে জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস ও বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম হোটেল সায়মনে যান। সেখানে তাদেরকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি তুলে ধরা হয়।

বিকালে বাংলাদেশ বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস ও বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম ঢাকার উদ্দেশে কক্সবাজার ত্যাগ করেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top