কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ১৩ জন আসামী

Screenshot_2018-06-30-20-39-59.png
দিসিএম
গত ২৯/০৬/২০১৮ ইং তারিখ হতে সকাল ০৮.০০ ঘটিকা হতে ৩০/০৬/২০১৮ ইং তারিখ সকাল ০৮.০০ টা পর্যন্ত অফিসার ইনচার্জ জনাব মোঃ ফরিদ উদ্দিন খন্দকার এর নেতৃতে পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জনাব মোঃ কামরুল আজম, পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশনস্ এ্যান্ড কমিউনিটি পুলিশিং) জনাব মোঃ মাইন উদ্দিন, পুলিশ পরিদর্শক (ইন্টিলিজেন্স) জনাব মোঃ খায়রুজ্জামান, এসআই আবুল কালাম, এসআই মোঃ রাশেদুল কবির, , এসআই সনজীত চন্দ্র নাথ, এএসআই মহিউদ্দিন, এএসআই  হারুন-অর-রশিদ সঙ্গীয় ফোর্স এবং ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মিনহাজ মাহমুদ ভূইয়া, সহ কক্সবাজার সদর মডেল থানা এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ১৩ জন আসামীকে গ্রেফতার করেন কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশ।
  গ্রেফতারকৃতরা হলেন ০১। সালাউদ্দিন দোলা, পিতা- মৃত নুরুল কাদের, সাং- বার্মিজ স্কুল, নজরুল ইসলাম সড়ক, ০২। সিদ্দিক, পিতা- আঃ সালাম, সাং- গোলদিঘির পাড়, উকিল পাড়া, ০৩। মোঃ জামাল, পিতা- আঃ হাকিম, সাং- মাইজ পাড়া, ঈদগাঁও, সর্বথানা ও জেলা- কক্সবাজার, ০৪। নেছার আহমদ, পিতা- ছবির আহমদ, সাং- চর পাথরঘাটা, থানা- কর্ণফুলী, জেলা- চট্টগ্রাম, ০৫। মিজানুর রহমান, পিতা- মোঃ হোসেন, সাং- জালালাবাদ, ঈদগাঁও, ০৬। শামসুল আলম, পিতা- মৃত গোলাম বারী, সাং- উত্তর নয়াপাড়া, পিএমখালী, ০৭। মোঃ মনির, পিতা- মৃত ইমান আলী, সাং- ঘোনার পাড়া, কক্সবাজার পৌরসভা, সর্বথানা ও জেলা- কক্সবাজার,  ০৮। এনামুল হক, পিতা- মৃত শাহাদাত হোসেন, সাং- আন্দার মানিক, থানা- মেহেদী গঞ্জ, জেলা- বরিশাল, ০৯। আবুল বশর, পিতা- মৃত লোকমান হাকিম, ১০।  আনজুমান আরা বেগম, প্রঃ চুনছু, স্বামী- নুরুল আলম, উভয়সাং- দক্ষিণ রুমালিয়াছড়া, বাচা মিয়ার ঘেঅনা, থানা ও জেলা- কক্সবাজার, ১১। আবুল হাসান, পিতা- মৃত আবুল কাশেম,সাং- ইকবাল পার্ক থানা- বোয়ালখালী, জেলা- চট্টগ্রাম, ১২্। মোঃ খালেদ, পিতা- মৃত বদর উদ্দিন, সাং- মাতার বাড়ী, ৬নং ওয়ার্ড, থানা- মহেশখালী, জেলা- কক্সবাজার, ১৩। রুবেল, পিতা- নবী হোসেন, টেকপাড়া, সওদাগর পাড়া, থানা ও জেলা- কক্সবাজারদেরকে বিভিন্ন মামলায় গ্রেফতার করিয়া বিজ্ঞ আদালতে প্রেরন করা হইয়াছে।
এব্যাপারে কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফরিদ উদ্দিন খন্দকার জানান, অব্যাহত অভিযান পরিচালনা করে পরোয়ানাভূক্ত পলাতক আসামী সহ থানা এলাকার ছিনতাইকারীদের গ্রেফতার পূর্বক আইনের আওতায় এনে এলাকার জনসাধারন ও পর্যটকদের সার্বিক নিরাপত্তার নিশ্চিত করা হবে এবং চুরি, ছিনতাই ও সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে পুলিশি অভিযান অব্যাহত থাকবে।
আপনার মন্তব্য লিখুন
Top