নিরাপদ স্বাস্থ্যসেবা পাচ্ছে রোহিঙ্গারা

rohingya-2.jpg

দিসিএম

মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত হয়ে আসা রোহিঙ্গারা নিরাপদ স্বাস্থ্যসেবা পাচ্ছে। তাদের জন্য ক্যাম্পের বিভিন্ন পয়েন্টে বসানো হয়েছে স্বাস্থ্যসেবাকেন্দ্র। সেসবকেন্দ্রে প্রতিদিন সকাল থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত প্রাথমিক চিকিৎসা ও ওষুধপত্র দেয়া হয়। জটিল রোগীদের উন্নত চিকিৎসার জন্য জেলা সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়। বলতে গেলে স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রে কোন ত্রুটি নেই।
২৮ জুন সরেজমিন উখিয়ার কুতুপালং অনিবন্ধিত রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ব্লক- ডি-৫ এ স্থাপিত কোস্ট ট্রাস্টের স্বাস্থ্যসেবাকেন্দ্রে গিয়ে দেখা গেছে রোগিদের দীর্ঘ লাইন। জ্বর, সর্দি, কাশি, বুক ব্যথা, মাথা ব্যথা ইত্যাদির চিকিৎসা নিতে গেছেন। সেবা নিচ্ছে গর্ভবর্তী নারীরা। রয়েছে শিশু রোগীরাও।
৭৫ বছর বয়সী আব্দুল করিম নামের এক রোগী বলেন, আমার সারা শরীর ব্যথা। শিরা উপশিরা ব্যথা। ডাক্তার দেখাতে এসেছি। অনেক আগে থেকে আমার এই অসুখ। এখানে চিকিৎসা নিয়ে ভাল লাগছে।
ষাটোর্ধ মাহমুদা খাতুন বলেন, ১০/১৫ দিন ধরে জ্বর-মাথা ব্যথা। সারছেনা। আমার দুই নাতিও অসুস্থ। চিকিৎসা করতে আসলাম। ডাক্তার আমাদের খুব ভাল করে দেখেছেন। ওষুধ দিয়েছেন।
কর্মরত চিকিৎসক রেহেনা পারভিনের কাছে জানতে চাইলে বলেন, এখানে বেশিরভাগ ডায়রিয়া, গ্যাস জনিত সমস্যা, জ্বর, সর্দি, কাশি, ব্যথা জনিত রোগী। তাদের চিকিৎসার পাশাপাশি ওষুধ দেয়া হচ্ছে। জটিল কোন রোগী আসলে রেফার করা হয়। আজকে ১ জন ডিপথেরিয়া রোগী রেফার করেছি। তিনি বলেন, দৈনিক প্রায় ১০০ রোগীর চিকিৎসা দেয়া হয়। অবিবাহিত বাদে সব রোগীকে জন্মনিয়ন্ত্রণের বিষয়ে কাউন্সিলিং করা হয়।
কোস্টট্রাস্টের নির্বাহী পরিচালক মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, শুরু থেকে আমরা রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়েছি। খাদ্য-পানীয় সরবরাহ ও চিকিৎসাসেবাসহ বিভিন্ন প্রকারের মানবিক সেবা দিয়ে যাচ্ছি। আমাদের নিয়োজিত কর্মীরা নিরলসভাবে কাজ করছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top