‘ইয়াবা কারবারীদের অবৈধ বিলাসবহুল প্রাসাদ জব্দ করা হবে’

FB_IMG_1530079998161.jpg

দিসিএম

মাদক বিরোধী অভিযানের পর আত্মগোপনে রয়েছে টেকনাফের চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ীরা। ইয়াবার টাকায় তৈরি তাদের বিলাসবহুল প্রাসাদ খালি পড়ে আছে। ওইসব প্রাসাদের তালিকা করা হয়েছে। প্রাসাদগুলো অতি শীঘ্রই জব্দ করে সরকারি কর্মকা-ে ব্যবহৃত হবে।

গতকাল মঙ্গলবার সকালে কক্সবাজার বিয়াম ফাউন্ডেশনের মিলনায়তনে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন এ কথা বলেন। জেলা প্রশাসন ও কক্সবাজার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর আয়োজিত অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্টেট সাইফুল আফসারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার ড.একেএম ইকবাল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. সিরাজুল মোস্তফা ও টুরিস্ট পুলিশের এএসপি ফজলে রাব্বি।

এতে আরও বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সোমেন মন্ডল। সভায় মাদকের করাল গ্রাস থেকে ফিলে আসা ১০জন যুবককে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন অতিথিরা। সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা সুপার বজলুল রশিদ আখন্দ, সদর ইউএনও মো. নোমান হোসেন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম জয়, জেলা মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের পরিদর্শক আবদুল মালেক তালুকদার।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top