পৌরবাসীর ভালবাসায় সিক্ত নৌকার প্রার্থী মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান

mujib_1.jpg

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:

বৃষ্টি উপেক্ষা করে জননেতা মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যানকে ফুলেল শুভেচ্ছা-ভালবাসায় বরণ করেছেন হাজারো নেতাকর্মী এবং পৌরবাসী। কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামীলীগ তথা সরকার দলীয় প্রার্থী হিসেবে “নৌকা প্রতীক” নিয়ে শনিবার বিকেলে কক্সবাজার বিমানবন্দরে পৌঁছলে তাঁকে এ গণসংবর্ধনা দেয়া হয়। এসময় পৌরবাসী ও দলীয় নেতাকর্মীর ফুলেল ভালবাসায় সিক্ত মুজিব চেয়ারম্যান উপস্থিত সকলের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, “আমাদের অভিভাবক মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনা এলাকার উন্নয়ন এবং মানুষের সেবা করার জন্য পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে আমাকে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছেন। আমি সবার দোয়া, ভালবাসা আর সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি”।

দুপুরের পর থেকে মুজিব চেয়ারম্যানের আগমন উপলক্ষ্যে কক্সবাজার বিমানবন্দরে বৃষ্টির বাঁধা উপেক্ষা করে হাজার হাজার নেতাকর্মী এবং সাধারণ মানুষ ভিড় জমাতে থাকে। তিনি পৌঁছার সাথে সাথে নৌকা নৌকা বলে শ্লোগানে মুখর হয়ে উঠে বিমানবন্দর এলাকা। পরে একটি খোলা জীপে করে পাবলিক লাইব্রেরীতে অনুষ্ঠিত আওয়ামীলীগের ৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে রওনা দেন মুজিব চেয়ারম্যান। পথিমধ্যে তিনি নতুন বাহারছড়া জামে মসজিদে আছরের নামাজ আদায় এবং পিতা মরহুম হাজী ছিদ্দিক আহমদ কোম্পানী ও প্রয়াত চাচা একেএম মোজাম্মেল হকসহ সকল আত্বীয় স্বজনের কবর জিয়ারত করেন। এরপর টেকপাড়ার মরহুম এডভোকেট মুস্তাইদুজ্জামান ওয়াকারের বাড়িতে যান এবং শোকাহত পরিবারের পত্রি সমবেদনা জানান মুজবুর রহমান চেয়ারম্যান।

এদিকে জেলা সদরের গুরুত্বপূর্ণ কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হওয়ার খবর পেয়ে কক্সবাজার শহরজুড়ে উল্লাস ছড়িয়ে পড়ে। দলীয় নেতাকর্মী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ বেশ খুশি মুজিব চেয়ারম্যানকে নৌকা প্রতীক দেয়ায়। তারা বলেন, শেখ হাসিনা মানুষ চিনতে ভুল করেননি। তিনি যোগ্য পিতার যোগ্য উত্তরসুরী, আমাদের প্রধানমন্ত্রী, তিনিই সবার আগে বুঝতে পারেন অসহায় গরীব দু:খির সেবা কে করতে পারবে, সেই চিন্তা মাথায় রেখে গণমানুষের প্রিয়নেতা মুজিবুর রহমানকে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা। এ জন্যে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতাও জানান দলের ত্যাগী নেতাকর্মীরা।

ইতোমধ্যে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার পর পত্র-পত্রিকা এবং সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে মুজিব চেয়ারম্যনকে অভিনন্দন ও ফুলেল শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন অনেকেই। অনেকেই লিখেছেন, “পর্যটন নগরী কক্সবাজারের উন্নয়নকে আরো তরান্বিত করতে হলে মেয়র হিসেবে জননেতা মুজিব চেয়ারম্যানের বিকল্প নেই। নির্বাচনে তিনিই বিজয়ী হবেন ইনশাআল্লাহ”।

গণসংবর্ধনায় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি শাহ আলম চৌধুরী, অধ্যাপিকা এথিন রাখাইন, রেজাউল করিম, এডভোকেট আমজাদ হোসেন, শফিক মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসেদুল হক রাশেদ, রনজিত দাশ, এমএ মনজুর, ইউনুছ বাঙ্গালী, হেলাল উদ্দিন কবির, আবু তাহের আজাদ, বদরুল হাসান মিল্কী, কক্সবাজার পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল কর, জেলা যুবলীগের সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুর, সাধারণ সম্পাদক শহিদুল হক সোহেল, জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিউল্লাহ আনসারী, শহর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আসাদ উল্লাহ, ডালিম বড়–য়া, মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হামিদা তাহের, জেলা যুব মহিলা লীগের সভানেত্রী আয়েশা সিরাজ, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইশতিয়াক আহমদ জয়, সাধারণ সম্পাদক মোরশেদ হোসাইন তানিমসহ তৃণমূলের অসংখ্য নেতাকর্মী।

এর আগে ২২ জুন শুক্রবার রাতে গণভবনে অনুষ্ঠিত আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভায় কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনে মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যানকে নৌকা প্রতীক দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনা স্বাক্ষরিত পত্র তুলে দেন আওয়ামীলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যরিষ্টার বিপ্লব বড়–য়া।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top