পরীক্ষার জন্য ১১ বার সুই ফুটানো : কক্সবাজার হাসপাতালে অবহেলায় শিশুর মৃত্যু

Presentation1-6.jpg

ডেস্ক নিউজ : কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে প্যাথলজি কর্মকর্তাদের অবহেলায় মো. আলী নামে ৩ মাসের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মৃত শিশু রামু উপজেলার চাকমারকুল ইউনিয়নের মনির হোসেন ও কাজল বেগমের সন্তান।

শিশুটির চাচা আবদুল্লাহ জানান, বৃহস্পতিবার সকালে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ডাক্তার দেখার পর তার রক্ত পরীক্ষার কথা বলেন। ওই পরীক্ষার জন্য শিশুটির শরীরে ১১ বার সুই ফুটিয়ে রক্ত নেন হাসপাতালের প্যাথলজি বিভাগের এক কর্মকর্তা। সুই ফুটানো সব জায়গা দিয়ে রক্তক্ষরণে এবং যন্ত্রণায় শিশুটির মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ তার। তিনি অভিযোগ করে বলেন, আমি নিষেধ করার পরও তারা জোরপূর্বক শিশুটির শরীরে প্রায় ১১ বার সুই ফুটিয়েছেন। রক্তাক্ত অবস্থায় শিশুটি মারা যায়। এতবার সুই ফুটানোর পর রক্ত বন্ধে কোনো উদ্যোগও নেয়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতাল পুলিশ বক্সের ইনচার্জ আপন হোসেন মানিক বলেন, এমন একটি বিষয় শুনেছি। তবে কেউ অভিযোগ করেনি। শিশুটির পরিবারও আমাদের কিছুই জানায়নি। এ বিষয়ে জানতে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) শাহিন আব্দুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগের একাধিকবার চেষ্টা করেও সংযোগ পাওয়া যায়নি। ছুটির দিন হওয়ায় তিনি অফিসেও আসেননি।

সূত্র – ভোরের কাগজ

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top