কক্সবাজারে অবশেষে নির্মিত হচ্ছে শিশু পার্ক

Presentation1-36.jpg

বলরাম দাশ অনুপম:

অতীত সময়কাল থেকেই কক্সবাজার জেলাবাসী প্রায়ই দাবী করে আসছিল শিশু পার্ক নির্মাণের। পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতের কারণে কক্সবাজার বিশ্বময় পরিচিতি লাভ করেছে। ফলে প্রতিবছরই এখানে আসে দেশ-বিদেশ থেকে অসংখ্য পর্যটক। স্থানীয়দের পাশাপাশি পর্যটকদেরও দাবী কক্সবাজারে একটি শিশু পার্ক নির্মিত হোক। বিভিন্ন সময়ে জেলা প্রশাসন থেকে শিশু পার্ক নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হলেও জায়গা চিহ্নিত না হওয়ার কারণে এতদিন সে উদ্যোগ সফল হয় নাই। অবশেষে পুরণ হলো জেলাবাসীর প্রাণের দাবী। কথা রাখলেন জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেন।

জানা গেছে, গত ২৫ এপ্রিল শহীদ দৌলত ময়দানে অনুষ্ঠিত শিশু মেলায় উপস্থিত শিশুদের দাবীর প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসক বলেছিলেন শীঘ্রই কক্সবাজারে শিশু পার্ক নির্মাণ করা হবে। সেই আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে সরকারি উদ্যোগে নির্মান করা হচ্ছে শিশু পার্ক। সোমবার বিকেলে জেলা প্রশাসক শিশু পার্কের সাইনবোর্ড স্থাপনের মাধ্যমে কার্যক্রমের সূচনা করা হয়।

এসময় সহকারি কমিশনার ভুমি মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন, সহকারি কমিশনার জুয়েল আহমদসহ সংশ্লীষ্টরা উপস্থিত ছিলেন। জেলা প্রশাসন ও শিশু পার্ক বাস্তবায়ন নাগরিক কমিটির উদ্যোগে কবিতা চত্বর ও বিয়াম স্কুলের মাঝামাঝি সৈকত সংলগ্ন তিন একর জায়গা জুড়ে নির্মান করা হবে পর্যটন নগরীর প্রথম শিশু পার্ক। এর অবকাঠামো নির্মানের কাজও দ্রুত শুরু হবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মোহ্ম্মাদ কামাল হোসেন। পরে ৩০ একর জায়গা সম্বলিত দরিয়ানগর জীব বৈচিত্র সংরক্ষণ পার্ক এবং ৭০০ একর জায়গা জুড়ে দরিয়া নগর বঙ্গবন্ধু সিভিল সার্ভিস একাডেমীর সাইনবোর্ড স্থাপন করে জেলা প্রশাসন।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top