‘ডিজিটাল আইল্যান্ড মহেশখালী’ এক বছর পূর্তি উদযাপন

31906946_1424008264369947_5927099695053668352_n-1.jpg

মহেশখালী প্রতিনিধি :

প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ‘ডিজিটাল আইল্যান্ড মহেশখালী’ প্রকল্পের ১ বছর পূর্তি অনুষ্ঠান উদযাপিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ডিজিটাল আইল্যান্ড কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার সংলগ্ন মাঠে এ বর্ষপূর্তি উদযাপন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ১০টায় মহেশখালী ডিজিটাল সেন্টারে অনুষ্ঠিত এ বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মহেশখালী-কুতুবদিয়ার এমপি আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক। প্রকল্প সংক্রান্তে মূল বক্তব্য রাখেন আইওএম’র প্রকল্প পরিচালক পেপিকা ছিদ্দীকি। প্রকল্পের সার্বিক বিষয় বিশ্লেষণ করে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখান মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আবুল কালাম, পৌর মেয়র মকছুদ মিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আনোয়ার পাশা চৌধুরীসহ প্রকল্প সংশ্লিষ্ট বিদেশী নাগরিকগণ। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) হাসান মারুফ, ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাসফিউল আলম সাকিব, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এম আজিজুর রহমান, কুতুবজোমের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন খোকন এবং দেশি বিদেশি সাংবাদিকসহ কোরিয়ান কেটি টেলিকমের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ। ডিজিটাল আইল্যান্ড প্রকল্প কর্মকর্তা মাছুম জানান, গেল বছর ২৭ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই প্রকল্পের শুভ সূচনা করেন। পিছিয়ে পড়া মহেশখালীর জনগোষ্ঠীকে শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও কৃষি খাতে ডিজিটাল প্রযুক্তি ও সুযোগ সুবিধার মাধ্যমে এগিয়ে নিতে দুনিয়াজোড়া আলোচিত ডিজিটাল গিগা আইল্যান্ড এর আদলে মহেশখালীকে গড়ে তোলতে এই প্রকল্প হাতে নেয় কোরিয়ান টেলিকম (কেটি)। জানাগেছে -ডিজিটাল আইল্যান্ড মহেশখালী প্রকল্পের আওতায় মহেশখালীর প্রায় ২৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হাই-স্পিড ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগ, হাই-কনফিগারেশন ল্যাপটপ, প্রজেক্টর ও ডিসটেন্স লার্নিং (দূরশিক্ষণ) এর ব্যবস্থা করা হয়। তাছাড়া মহেশখালী হাসপাতালে হাই-স্পিড ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগ, হাই-কনফিগারেশন ল্যাপটপ, ডিজিটাল আল্ট্রাসনোগ্রাফি ডিভাইস ও টেলিমেডিসিন সেবার ব্যবস্থা করা হয়। কমিউনিটি ক্লিনিক সমূহে উচ্চ গতির ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগ, হাই-কনফিগারেশন ল্যাপটপ, বিভিন্ন রোগ নির্ণয়ের জন্য ডিজিটাল ডিভাইস প্রদান করা হয়। কৃষি খাতে উন্নয়নের জন্য প্রান্তিক কৃষকদেরকে সুসংগঠিত করা, প্রশিক্ষণ প্রদান, ও মহেশখালীর কৃষি পণ্যকে বিশ্বের কাছে তুলে ধরতে ই-কমার্স সার্ভিস চালু করা হয়৷ পাশাপাশি প্রযুক্তি জগতে মহেশখালীর তৃণমূল জনগোষ্ঠীকে এগিয়ে নিতে সমাজসেবা অধিদপ্তরের পরিচালনায় চালু করা হয় স্কিল ডেভেলপমেন্ট কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার। এদিকে গতকাল এক বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে সফল ইউএনও মোহাম্মদ আবুল কালামসহ বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে স্কুল মাদ্রাসার শিক্ষক, শিক্ষার্থী, রাজনীতিবিদ, সরকারি কর্মকর্তা ও সমাজ কর্মীদের মাঝে প্রকল্পের আওতায় বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে সম্মাননা স্মারক দেওয়া হয় আয়োজকদের তরফ থেকে। উল্লেখ্য -প্রাথমিকভাবে পাইলট প্রকল্প হিসেবে মহেশখালীর তিনটি ইউনিয়নকে প্রকল্পের আওতায় আনা হয়েছে। পরবর্তীতে পুরো মহেশখালীকে প্রকল্পের আওতায় নেওয়া হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানান। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এমপি আশেক বলেন -জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যাজননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিশ্বর দরবারে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে তিনি সার্বিক ভাবে কাজ করে চলেছেন। মহেশখালীর এই ডিজিটাল আইল্যান্ড তেমনি ভাবে দুনিয়ার কাছে একটি অন্যতম উদাহরণ। এদিকে বর্ষপূর্তি উপলক্ষে কোরিয়া থেকে মহেশখালী আসেন ১২ সদস্যের একটি উচ্চমান প্রতিনিধি দল। এই সাথে মহেশখালী ডিজিটাল আইল্যান্ড পরিদর্শন কোরিয়ার একদল সাংবাদিক। তারা প্রকল্পের বিভিন্ন কার্যক্রম ঘুরে দেখেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top