মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের সাঁড়াশি অভিযান, ১৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে দণ্ড

IMG_20180507_021453.jpg

সিবিএন:
কক্সবাজার মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের সাঁড়াশি অভিযানে ১৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে দণ্ড দেয়া হয়েছে।
৫ মে দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত শহরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালানো হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর কক্সবাজার কার্যালয় সুত্র জানায়, ৫ মে বেলা দেড়টায় অভিযানে কক্সবাজার বিমানবন্দর থেকে ৭৫০ টি ইয়াবাসহ নাঈম (২৬) নামে পাচারকারী আটক করা হয়েছে। সে নরসিংদি জেলার শিবপুর থানার শহীদের খোলা এলাকার মুহাম্মদ সেলিমের ছেলে।

?
একই দিন বিকাল ৫টা থেকে রাত প্রায় ১০টা পর্যন্ত শহরের পানবাজার, পূর্ব রাখাইনপাড়া, পূর্ব মাছবাজার, টেকপাড়া, সুগন্ধা পয়েন্ট, কলাতলী চন্দ্রিমা হাউজিং, আদর্শগ্রামে মাদক বিরোধী মোবাইল কোর্ট চালানো হয়।
এ সময় ইয়াবা ও গাঁজাসহ ১৫ জনকে আটক করেছে অভিযানকারীরা।
আটকরা হলো- আবুল কালাম (৪০), হাসানুল ইসলাম সোহাগ (৩০), চক্যা রাখাইন (২২), মুহাম্মদ আলী, (৪০), মু. জিল্লুর রহমান (৪০), রেজাউল করিম (২২), আবুল কালাম (২৯), নুরুল ইসলাম (৪৫), আবদুর রশিদ (২০), সাদ্দাম (২৫), মো. নাসির উদ্দিন (২২), খোকন কান্তি দে (৪২), রাজিব পাল (২৬), সাইফুল ইসলাম (২৪) ও নুরুল আবছার (২৪)।
তাদের বিভিন্ন মেয়াদে দ- প্রদান করেছেন অভিযানে নেতৃত্ব প্রদানকারী জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তানভীর আহমদ।
এসময় র‌্যাব-৭ কক্সবাজার অফিসের অধিনায়ক মেজর মো. রুহুল আমিন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর কক্সবাজার কার্যালয়ের ইন্সপেক্টর আবদুল মালেক খান, এসআই আবুল কাশেম, সিপাহী আবদুল্লাহ আল মামুন, জ্ঞানচন্দ্র দত্তসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলে

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর কক্সবাজার কার্যালয়ের ইন্সপেক্টর আবদুল মালেক খান সিবিএনকে জানান, কক্সবাজারকে মাদকমুক্ত করতে তাদের অভিযান চলছে। যারা মাদকদ্রব্যের সঙ্গে যুক্ত তাদের সঠিক তথ্যের ভিত্তিতে সম্ভাব্য স্থানে সাঁড়াশি অভিযান চালানো হবে। কোন মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবীকে ছাড় দেয়া হবেনা।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top