বিনা বিচারে কেন একজন মহিলা জেল খাটবে, প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর

31646705_1906712212685966_5196287464628551680_n.jpg

নিউজ ডেস্ক।।

দুর্নীতি মামলায় সাজা প্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির যে দাবি করে আসছেন বিএনপি নেতারা তারা জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন: খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিক ভাবে গ্রেফতার করা হয়নি। আদালতের রায়ে তিনি দণ্ডিত হয়েছেন। এখানে সরকারের কি করার আছে? উল্টো তার চাহিদা মোতাবেক একজন নিরপরাধ মহিলাকে তার সেবার জন্য জেলখানায় রাখা হয়েছে। এটা কোন দেশে বলেন? আমরা প্রশ্ন হচ্ছে: একজন নিরপরাধ মানুষ কেনো জেল খাটবে? আর মানবাধিকার সংগঠন গুলোই বা টু শব্দও করছে না কেনো?

সৌদি আরব, যুক্তরাজ্য এবং অস্ট্রেলিয়া সফর শেষে বুধবার বিকেলে গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিক নেতা সাবান মাহমুদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

সাবান মাহমুদ তার প্রশ্নে বলেন:  আপনার পক্ষ থেকে এবং আপনার দলের হাইকমাণ্ডের পক্ষ থেকে বারবারই বলা হচ্ছে আগামী নির্বাচন হবে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন।  সেই লক্ষ্যে আওয়ামী লীগের আন্তরীকতারও কোন ঘাটতি নেই।  তারপরও বিএনপির পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে তাদের দণ্ডিত নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কারামুক্ত করা না হলে, তারা নির্বাচনে আসবে না।  বিষয়টি যখন আইনি প্রক্রিয়ার মধ্যে আছে, তাদের এ দাবি মেনে নেওয়ার কোন সুযোগ সরকারের আছে কিনা এবং বিএনপি যদি নির্বাচনে আসে আগামী জাতীয় নির্বাচনে গত দু’বার যেভাবে আওয়ামী লীগ নিরঙ্কুশ বিজয় নিয়ে ক্ষমতায় এসেছে, বিপরীতে আওয়ামী লীগ কোন কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে নাকি, আবারও ক্ষমতায় যাবে আপনি কি মনে করেন?

জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন: একটা কথা আছে, ‘ঘি সব সময় খাটিই হয়’ আর ‘জনসভা সব সময় বড়’ই হয়’।  নিজ রাজনৈতিক দল সব সময় সবচেয়ে বৃহৎ দল এবং নির্বাচন হলে আমরা জয়ী হবো, এমনটা নিশ্চয় আমরা সব সময় বলবো। এটা আমরা আশাও করি।  আর এতো উন্নয়ন করার পর জনগণ যদি ভোট না দেয়, আর ক্ষমতায় যদি না আসতে পারি, আমরা না আসলে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা যে নষ্ট হয়ে যায় আপনারা ৯৬ থেকে ২০০১ পর্যন্ত আপনারা দেখেছেন।  আমরা যে উন্নয়ন করেছিলাম সেটা যে নষ্ট হয়ে গিয়েছিলো ২০০১ এ বিএনপি আসার পর থেকে সেটা সকলেই জানেন।  কাজেই ওই ভাবে যদি বাংলাদেশকে আবারও ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিতে না চান, তাহলে নিশ্চয় আওয়ামী লীগকে সবাই ভোট দেবে, আওয়ামী লীগ আবারও ক্ষমতায় আসবে।

দ্বিতীয় কথা হলো, বিএনপি বলছে তাদের নেত্রী মুক্ত না হলে ইলেকশন করবে না।  তাদের নেত্রীকে তো আমি জেলে পাঠাই নাই। আমি যদি জেলে পাঠাতাম, তাহলে রাজনৈতিক কারণে ২০১৪-১৫ তেই পাঠাতাম। ২০১৫ সালে যখন মানুষ পুড়িয়ে পুড়িয়ে হত্যা করছিলো। সে নিজেকেই নিজে একটা অফিস রুমে অন্তরীণ করলো। ৬৮ জন লোক নিয়ে এক বাড়ির মধ্যে থেকে এবং সেখান থেকে হুকুম দিয়ে দিয়ে মানুষ যখন হত্যা করলো, তখনই তাকে আমি গ্রেফতার করতাম। কিন্তু আমি রাজনৈতিক ভাবে করতে চাইনি।

‘এমনকি আপনারা জানেন, তার ছেলে মারা গেলো আমি দেখতে গেলাম আমার মুখের ওপর দরজা বন্ধ করে দিলো।  আমাকে ঢুকতে দিলো না। অন্যকোন দেশ হলে কী করতো? ওই দরজার বাইরে থেকে আরেকটা তালা দিয়ে রেখে দিতাম। যেনো ওখান থেকে কেউ বের হতেই না পারে। হ্যাঁ সেটা করতে পারতাম, আমি ইচ্ছে করলে। আমি যখন ঢুকতে পারবো না, তোমরাও বের হতেও পারবা না। সে তালাও আমি দিয়ে দিতে পারতাম কিন্তু। আমরা কিন্তু তাও করি নাই।’

তিনি আরও বলেন, রাজনৈতিক ভাবে তাকে গ্রেফতারও করিনি হয়রানিও করিনি। একটা মামলা দশ বছর ধরে চললো। ১৫২ না ৫৪বার সময় নিয়েছে তিনবার কোর্ট বদল হয়েছে। ২২বার রিট হয়েছে। তারপরও বিএনপির এতো বড় বড় ল’ইয়ার কতো বড় বড় আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ল’ইয়াররা তারা কিছুতেই প্রমাণ করতে পারলো না যে, খালেদা জিয়া এতিমখানার নামে টাকা এনে দুর্নীতি করে নাই। কোর্ট রায় দিয়েছে আমাদের কাছে দাবি করলে তো কিছু হবে না। যেখানে কোর্ট রায় দিয়েছে আইনগত ভাবে সে কারাগারে গেছে। আইনগত ভাবে যখন কারাগারে গেছে আইনগত ভাবেই ফাইট ব্যাক করতে হবে। এখানে আমাদের কাছে দাবি করে কি লাভ হবে?

খালেদা জিয়ার সঙ্গে একজন নিরাপরাধ মহিলা দেয়া প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বরং আমি একটা অন্যায় কাজ করেছি। বলেন তো অন্যায়টা কী? একজন নিরপরাধ মানুষ, ফাতেমা বেগম। ওনার এখন সঙ্গে মেড সার্ভেন্ট লাগবে। আপনারা বলেন, সাজাপ্রাপ্ত কোন আসামীকে কে, কবে, কোন দেশে, মেড সার্ভেন্ট সাপ্লাই দিয়েছে? তাদের সে দাবিও আমরা মেনে নিয়ে আমার হোম মিনিস্টার দয়াপরবশ হয়ে মেড সার্ভেন্ট পর্যন্ত সাথে দিয়ে দিয়েছে। আমি জানি না, আমাদের দেশের মানবাধিকার সংস্থা……এতো সোচ্চার তারা, কেউ কিন্তু সোচ্চার হয় নাই। একজন নিরপরাধ মানুষ কেনো খামাখা জেল খাটবে? তারপরও যদি একটা ভালো বেতন টেতন দিতো তাও না। কতো বেতন দেন, সেটা জিজ্ঞেস করে নিয়েন, সেটা আর আমি বলতে চাই না। একটা নিরপরাধ মানুষকেও কিন্তু জেল খাটতে হচ্ছে। খালেদা জিয়ার কারণে, যে সাজাপ্রাপ্ত আসামী। যে বিনা বিচারে বিনা সাজায় বিনা কারণে কেনো একজন মহিলা জেল খাটবে আপনারা আমাকে বলেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top