ব্রিটিশদের ইসলামভীতি দূর করতে নিজের তৈরি মিষ্টি বিতরণ করছেন আলী ইমদাদ

Presentation1-56.jpg

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

লন্ডন: ‘Great British Bake Off’ প্রতিযোগিতায় রানার্স আপ ব্রিটিশ নাগরিক আলী ইমদাদ ব্রিটিশদের মাঝে ইসলামভীতি দূরীকরণে মিষ্টি বিতরণ করছেন। এ যেন ইমদাদের ভিন্ন ধরনের লড়াই ইসলামফোবিয়ার বিরুদ্ধে।

তিনি সর্বদা নিজস্ব রেসিপি দিয়ে বানানো মিষ্টি সবার মাঝে বিতরণ করে থাকেন।

‘আমি সাম্প্রদায়িকতার শিকার হয়েছি আমাকে গালাগালি করা হয়েছে বিশেষ করে ব্রেক্সিট ও ট্রাম্পের বিজয়ের পর এ ধরনের ঘটনা বেড়েছে।’

তিনি বলেন, ‘মুসলিম বলতে এখানে অনেকেই সন্ত্রাস, অভিবাসী ও হিজাবের কথা মনে করে’।

ত্রিশ বছর বয়সি আলী পূর্ব লন্ডনের Bake street এ একটি ক্যাফে চালু করেছেন যেখানে পশ্চিমাদের আরবের তৈরি মিষ্টি খেতে আমন্ত্রণ জানান।

তিনি বলেন, ‘ খাবার যতটা সহজে মানুষকে আকৃষ্ট করে তা অন্যকিছু পারে না, তাই আমি পশ্চিমাদের মনে থেকে ইসলাম ভীতি দূর করতে এই উদ্যোগ নিয়েছি’।

‘আমি অভিবাসী না, আমি এখানেই জন্মেছি এখানেই বেড়ে উঠেছি তারপরও আমাকে নানান কথা শুনতে হয়।’

অনেক মুসলিমতো ‘Punish a muslim day’ তে ঘর থেকে বের হয় না।

তিনি আশা করেন তার এই ব্যতিক্রমী উদ্যোগ কিছুটা হলেও ইসলাম ভীতি দূর করতে সাহায্য করবে।

‘ইসলামভীতিকে নির্বাচনী হাতিয়ার বানাচ্ছে ডানপন্থী রাজনীতিকেরা’
ইউরোপ এবং যুক্তরাষ্ট্রের ডানপন্থী রাজনীতিবিদরা নির্বাচনে জয়লাভ করতে ইসলামফোবিয়াকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে বলে মনে করছেন একজন মার্কিন অধ্যাপক।

ক্যালিফোর্নিয়া-বারকেলি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. হাতেম বাজিয়ান রবিরার তুরস্কের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম ‘আনাদুলো এজেন্সি’কে দেয়া সাক্ষাতকারে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘ইউরোপ এবং যুক্তরাষ্ট্রে ইসলামফোবিয়াকে একটি রাজনৈতিক প্রজেক্ট হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে এবং এর সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন অতি ডানপন্থী গোষ্ঠী ও নিন্দিত কিছু রাজনৈতিক অভিজাতরা। এসব রাজনীতিবিদরা নির্বাচনে জয়লাভ করতে ইসলামকে খারাপ হিসেবে উপস্থাপনের চেষ্টা করছেন।’

বাজিয়ান ইস্তাম্বুল-ভিত্তিক ইংরেজি দৈনিক ‘সাবাহ’র একজন সাপ্তাহিক কলামিস্ট। এছাড়াও, তিনি ‘জায়েতুনা’ কলেজের ইসলামি আইন ও ধর্মতত্ত্বেরও একজন অধ্যাপক।

সাবাহাতিন জেইম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামোফোবিয়া নিয়ে তিন দিনের সম্মেলনে অংশ নিতে তিনি এখন ইস্তাম্বুলে আছেন।

বাজিয়ানি বলেন, ‘মুসলমানদেরকে খারাপ হিসেবে চিত্রিত করার এবং তাদেকে লক্ষ্যবস্তু করার কৌশল নির্বাচনী রাজনীতির দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে।’

সাম্প্রতিককালে বেশ কয়েকটি ইউরোপীয় দেশে ডানপন্থী দলগুলো শরণার্থী সংকটকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে নির্বাচনে জয়লাভ করেছে।

বাজিয়ান বলেন, ডানপন্থী রাজনৈতিক দলগুলো নিজেদেরকে দেখানোর চেষ্টা করছে যে, তারা পশ্চিমা সমাজকে বহিরাগতদের হাত থেকে রক্ষা করছেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top