বাহারছড়ার হাজামপাড়ায় সংঘর্ষে নারী নিহতের ঘটনায় আটক ৩

29138379_594782714193873_1437293261_n-7.jpg

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ
টেকনাফের বাহারছড়া হাজামপাড়ায় সীমানা বিরোধ নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে চিকিৎসাধীন এক মহিলা মারা গেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। এঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে মা-ছেলেসহ ৩ জনকে আটক করে রিমান্ড আবেদন জানিয়ে আদালতে প্রেরণ করেছে।
জানা যায়, গত ৬ এপ্রিল বিকালে টেকনাফ উপজেলার উপকূলীয় বাহারছড়া ইউনিয়নের হাজামপাড়ায় সীমানা বিরোধ নিয়ে প্রতিবেশী আব্দুল হাফেজের স্ত্রী ময়না খাতুন (৪২) গংয়ের এর সাথে নুরুল ইসলামের স্ত্রী সেতারা ইয়াছমিন প্রকাশ সেতারা বেগম (৪৫) গংয়ের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে প্রতিপক্ষের হামলায় ময়না খাতুন গুরুতর আহত হয়ে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১০ এপ্রিল রাত সাড়ে ৭টায় মৃত্যুবরণ করেন।
এব্যাপারে টেকনাফ মডেল থানায় স্থানীয় কালা মিয়ার পুত্র আব্দুল মান্নান (৫০) বাদী হয়ে নামীয় ৭ জন ও অজ্ঞাতনামা ৫/৬ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলা নং-৩০, তারিখ ১১-৪-২০১৮ ইংরেজী। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মহির উদ্দিন খান উজ্জল সকাল হতে বিকাল ২টায় পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে বাহারছড়া হাজামপাড়ার নুরুল ইসলামের পুত্র ছৈয়দুল ইসলাম প্রকাশ ছাইদুল (২২), মোঃ ফারুকুল ইসলাম প্রকাশ ফারুক (১৯) ও নুরুল ইসলামের স্ত্রী সেতারা ইয়াছমিন প্রকাশ সেতারা বেগমকে (৪৫) আটক করে।
টেকনাফ মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) রনজিত কুমার বড়ুয়া জানান,দায়েরকৃত হত্যা মামলায় আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৫দিনের রিমান্ড আবেদন জানিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। বাহারছড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাওঃ আজিজ উদ্দিন ঘটনার সত্যতা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। 

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top