ভেজাল খাদ্যের বিরুদ্ধে প্রিন্সের মোবাইল কোর্ট

6419bc29175c0c3020af9c9a61207344-5ac25d46ab869-55.jpg

দিসিএম।।

কক্সবাজার সদরের পিএম খালীতে জনসচেতনতা বৃদ্ধি ও নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতকরণ এর লক্ষে ভেজাল খাদ্যের বিরুদ্ধে  নির্বাহী কর্মকর্তা  নোমান হোসেন প্রিন্স মোবাইল কোর্ট পরিচালনা   করেন ৭ এপ্রিল দুপুরে পিএমখালী ইউনিয়ন এ অবস্থিত জনতা ফুড প্রোডাক্টস এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।জনতা ফুড প্রোডাক্টস্ নামক বেকারিটি কোন রকম কাগজপত্র বিএসটিঅাই,স্বাস্থ্য সনদ, ফায়ার সার্ভিস সনদ ইত্যাদি ছাড়াই ব্যবসা পরিচালনা করে অাসছিল।

তাছাড়া তারা অপরিস্কার ও নোংরা প রিবেশে খাদ্য তৈরি করে অাসছে। তাদের অধিকাংশ খাদ্যে কাপড়ের রং মিশাচ্ছে যা মানবদেহের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর মর্মে প্রতিয়মান হয়। কারখানায় কর্তব্যরত শ্রমিক এর গায়ে কোন এপ্রুন বা হাতে কোন গ্লাবস ছিল না। বাথরুম এবং খাবার তৈরির কারখানায় পাশাপাশি অবস্থিত ছিলো বিধায় মশা-মাছি সহ অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ বিরাজ করছিল। বিষয়টি কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নোমান হোসেনের নজরে আসলে এদিন তিনি উক্ত ফ্যাক্টরিতে যায় এ সময় অনেকক্ষণ অপেক্ষার পরও জনতা ফুড প্রোডাক্টস্ এর কর্তৃপক্ষ বা মালিক কে পাওয়া যায়নি। পরে কারখানাটি বন্ধ করে দেওয়া হয় এবং প্রস্তুতকৃত বেকারি প্রোডাক্টগুলো নর্দমায় ফেলে দেওয়া হয়। মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে কক্সবাজার জেলা পুলিশ, এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সহ সাংবাদিকগন উপস্থিত ছিলেন।জানতে চাইলে ইউএনও নোমান হোসেন জানান, ভেজাল খাদ্যের বিরুদ্ধে নিজে সচেতন হই, অন্যকে সচেতন করি। এসবের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যহত থাকবে বলে জানান তিনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top