চকরিয়ায় এক নারীকে ছুরিকাঘাতে ক্ষতবিক্ষত

6419bc29175c0c3020af9c9a61207344-5ac25d46ab869-27.jpg

দিসিএম নিউজ ডেস্ক।।

কক্সবাজারের চকরিয়ায় রেজাউল করিম (৩০) নামের এক যুবককে বেসরকারি সংস্থা থেকে ঋণ তুলে না দেওয়ায় নমিয়া খাতুন (৬২) নামের এক নারীর পিঠে উপর্যপুরি ছুরিকাঘাত করেছে। মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে চকরিয়া পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের সোসাইটিপাড়ায় এই হামলার ঘটনা ঘটে। তিনি পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের সোসাইটিপাড়ার আকবর আহমদের স্ত্রী।
নমিয়া খাতুনের বড় ভাই মাহবুবুর রহমান জানান, তাঁর ছোট বোন নমিয়া খাতুন বেসরকারি ঋণদান সংস্থা ‘আশা’য় চাকুরি করতেন। সমিতির মাধ্যমে এলাকার বিভিন্ন ব্যবসায়িকে ঋণ দেন। একই এলাকার মৃত ইছাক আহমদের পুত্র রেজাউল করিম তার বোনের মাধ্যমে বেশ কয়েকবার ঋণ নিয়েছেন। কিন্তু রেজাউল নিয়মিত ঋণের কিস্তি পরিশোধ না করায় অনেকবার হয়রানির শিকার হতে হয়েছে নমিয়াকে। রেজাউল করিম পূনরায় ঋণ নেওয়ার জন্য নমিয়া খাতুনকে চাপ দিতে থাকেন। কিন্তু নমিয়া খাতুন তাকে ঋণ দেওয়া হবে না বলে সাফ জানিয়ে দেন।
চকরিয়া পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুজিবুল হক জানান, ঘটনারদিন নমিয়া খাতুন সোসাইটিপাড়ার বিভিন্ন ব্যবসায়িদের ঋণ দেওয়ার জন্য পার্শ¦বর্তী নুরুল কবির বাবুর বাড়ির উঠোনে বৈঠকে বসেন। ওইসময় রেজাউল করিম তার ভাই চিরিঙ্গা হাসপাতাল সড়কস্থ জিয়া কুলিং কর্নারের মালিক জিয়াবুল হক সহ ধারালো অস্ত্র নিয়ে নমিয়াকে ছুরিকাঘাত করে। এতে মারাত্মকভাবে আহত হয়। এসময় তাকে উদ্ধার করে চকরিয়া সরকারি হাসপাতাল নেওয়া হয়। পরে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নমিয়ার পিঠে ১’শ ২০টা সেলাই করা হয়েছে। বর্তমানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। এব্যাপারে চকরিয়া থানার ওসি মো: বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘পৌরসভার সোসাইটি পাড়ায় বৃদ্ধা নারীর ওপর নৃসংশতার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামী ধরার জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top