এমপি বদিকে প্রাণনাশের হুমকি

6419bc29175c0c3020af9c9a61207344-5ac25d46ab869-12.jpg

বিশেষ প্রতিবেদক:

হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের পরিত্যক্ত ভবন জবরদখল করতে না পেরে উখিয়া-টেকনাফের সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রাননাশের হুমকি দিয়েছেন সাবেক সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যাপক মোঃ আলীর ছেলে উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মাহবুব মোরশেদ ও তারেক মোঃ রনি। এমপি নিজেই এই অভিযোগ করেছেন।

জানা গেছে, গত ১ এপ্রিল দীর্ঘ ৪৭ বছর পরে হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের নতুন ভবন উদ্বোধন করেন উখিয়া-টেকনাফের সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি। এমপি বদির অনুরোধে এই ভবনের জন্য কোটি টাকা মূল্যের জায়গা দান করেন আওয়ামীলীগের প্রবীন নেতা ও সাবেক মেম্বার সালেহ আহমদ। পরিষদের নতুন ভবনের জমিদাতা সাবেক ইউপি সদস্য সালেহ আহমদকে ইউনিয়ন পরিষদের পরিত্যক্ত ভবনটি ভাড়া হিসেবে দেওয়ার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, সকল সদস্যদের মতামতের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

কিন্তু অভিযোগ, এই ঘটনা জানাজানি হওয়ার পরে সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যাপক মোঃ আলীর পুত্র মাহবুব মোরশেদ হ্নীলা উচ্চ বিদ্যালয়ের জন্য আবাসিক ছাত্রাবাস করার নামে ভবনটি জবর দখল করার পাঁয়তারা করে। কিন্তু তাদের সরকারী ভবন দখলের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে না পেরে এমপি বদিকে নিয়ে নানা অপপ্রচার শুরু করে সাবেক সাংসদের পুত্র চিন্হিত ভূমিদস্যু মাহবুব মোরশেদ ও রনি ও তাদের কয়েকজন অনুসারী। গত কয়েকদিন যাবত তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমপি বদি ও আওয়ামীলীগের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। সেই সাথে এমপি বদিকে বিভিন্নভাবে প্রাননাশের হুমকিও দেয়া হয়েছে।

হ্নীলা ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান আবুল হোসেন জানান, সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যাপক মোঃ আলীর অনুরোধেই হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের নতুন

 

 

ভবন নির্মানের জন্য জমি দিতে রাজী হন সাবেক ইউপি সদস্য সালেহ আহমদ। অধ্যাপক মোঃ আলী নিজেই এই পরিত্যক্ত ভবনটি সালেহ আহমদকে লীজ দেয়ার অনুরোধ করেন। পরে ভবন উদ্বোধনের পরে পরিষদের সকলের সিদ্ধান্ত মতে আইন অনুসারে সালেহ আহমদ পুরাতন পরিত্যক্ত ভবনটি লীজ দেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়। এই ঘটনায় উখিয়া-টেকনাফের জননন্দিত জননেতা এমপি বদিকে নিয়ে যে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে তা খুবই দঃখজনক।

অভিযোগ প্রসঙ্গে  জানতে চাইলে সাবেক সাংসদ পুত্র মাহবুব মোরশেদ জানান, স্থানীয় ভাবে পরিত্যক্ত ভবনটি স্কুলের জন্য ব্যবহারের পরিকল্পনা ছিল ঠিক। কিন্তু সাবেক ইউপি সদস্যকে বরাদ্দ দেয়ায় তারা ক্ষুদ্ধ হয়েছেন। তিনি তবে এমপি বদিকে নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ার কথা স্বীকার করলেও প্রাননাশের হুমকি দেয়ার বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেন।

 

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top