চকরিয়ায় মালেক টাওয়ারের ছাদ থেকে পড়ে শিশুর মৃত্যু

FB_IMG_1522501494085.jpg

ইকবাল বাহার চৌধুরী:
চকরিয়া পৌরসভার ৪ ওয়ার্ডের বিমান বন্দর সড়কস্থ মালেক টাওয়ারের ৬ষ্ঠ তলার ছাদ থেকে পড়ে ১৪ মাস বয়সের এক শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে।

নিহত শিশুর নাম নিধি (১৪ মাস)। পিতা -মোস্তাক আহম্মদ, মাতা- শিরিন আকতার। বাড়ি পেকুয়া উপজেলার টৈটং ইউনিয়নের সোনাইছড়ি গ্রামে। তারা কয়েক মাস আগে চিরিংগা সবুজবাগ আবাসিক এলাকার ভাড়া বাসা পরিবর্তন করে মালেক টাওয়ারের ৬ষ্ঠ তলার একটি বাসায় ভাড়া করেছিল। বর্তমানে তারা এখানে অবস্থান করছেন।

ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা যায়, মালেক টাওয়ারে ৬ষ্ঠ তলায় ভাড়া বাসাতে থাকত মোস্তাকের পরিবার। নিহত শিশুর পিতা মোস্তাক আহম্মদ বেসরকারি এনজিও সংস্থা আশা ব্যাংক রামু শাখায় কর্মরত।

৩১ মার্চ দুপুর ১২:৩০ ঘটিকার সময় নিহত শিশুর মা শিরিন আক্তার রান্না- বান্নার কাজে ব্যস্ত থাকায় বড় মেয়ে নিলীমা আহমেদকে নিহত শিশুকে কোলে নিয়ে ছাদে খেলতে বলে। ছাদে খেলতে গিয়ে এক পর্যায়ে ছাদের রিলিং এর কাছে দাঁড়ানো অবস্থায় হঠাৎ নিলীমার কোল থেকে ১৪ মাসের মেয়ে শিশুটি নিচে পড়ে যায়। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পূর্বেই শিশুটির মৃত্যু হয়।

জানা যায়, মোস্তাক আহমদ’র তিন জন মেয়ে। কোনো পুত্র সন্তান নেই। তিন মেয়ের মধ্যে নিহত নিধি সর্ব কনিষ্ঠ। তার বড় মেয়ে নিলীমা আহমেদ চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ’র ৫ম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত এবং দ্বিতীয় মেয়ে নৌশিন শারমিন একই স্কুলের নার্সারিতে অধ্যয়নরত।

রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত শিশুর লাশ মালেক টাওয়ারের ৬ষ্ঠ তলা ভাড়া বাসায় রেখেছে।

এদিকে মেয়ের মৃত্যুর দৃশ্য দেখে তার মা শিরিন আক্তার বেহুশ হয়ে পড়েন। সাথে সাথে তাকে চকরিয়া জমজম হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। বর্তমানে তিনি অজ্ঞান অবস্থায় কিৎসাধীন আছেন বলে জানিয়েছেন তার আত্মীয়-স্বজন।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top