ঢাকার বাইরে গিয়ে দেখেন দেশের মানুষের কী অবস্থা

29387154_189423418340226_4255852015223046144_n-14.jpg

নিউজ ডেস্ক।। সরকারের উন্নয়নের দাবির বিষয়ে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘শুধু বড় বড় কথা। আমরা উন্নয়নশীল দেশ হয়েছি, উন্নত হয়েছি। ঢাকায় চাকচিক্য আছে। ঢাকার বাইরে গিয়ে দেখেন দেশের মানুষের কী অবস্থা। মানুষ কীভাবে বাস করছে। খাবার আছে কি না। দুবেলা খেতে পারে কি না। তখন বুঝতে পারবেন আপনারা কতটুকু উন্নয়ন করেছেন।’আজ শনিবার দুপুরে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সম্মিলিত জাতীয় জোট আয়োজিত মহাসমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ‘মানুষ শন্তিতে বাঁচতে চায়, নিরাপত্তা চায়। কিন্তু কোথাও সুখ নেই, কোথাও শান্তি নাই, নিরাপত্তা নেই। দেশে মাদক আর ইয়াবা। কোথাও চাকরি নেই। যুবকরা চাকরি না পেয়ে মাদকে ঝুঁকছে। জাতীয় পার্টিই কেবল শান্তি ও সুখ দিতে পারে।’

এরশাদ বলেন, ‘ব্যাংকে টাকা নেই। ব্যাংক লুটপাট। শেয়ারবাজার লুট করেছে। সব কিছুতে লুটপাট। সুখবর নেই কোথাও। আমরা এদের বিচার করব।’

এ সময় নির্বাচন কমিশনকে নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা দিয়েছেন জানিয়ে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেছেন, ‘আমি বলেছি, যা বলেছি ঠিক বলেছি। বয়স হলেও আমার মাথা নষ্ট হয় নাই। আমার মাথা ঠিক আছে।’

এরশাদ বলেন, ‘আমি বলেছি নির্বাচনকালীন সময়ে আমরা যারা সংসদে আছি তাদের নিয়ে মন্ত্রিসভা গঠন করতে হবে। আমরা নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করব না। নির্বাচন করবে নির্বাচন কমিশন।’

তিনি আরো বলেন, ‘জাতীয় পার্টি সুষ্ঠু নির্বাচন চায়। জনগণের ভোটাধিকার চায়। সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে সরকার বাধ্য। আগামী সুষ্ঠু নির্বাচনে জয়ী হয়ে সরকার গঠন করব, এটাই আমার বার্তা।’

এ ছাড়াও গণ আন্দোলনে ক্ষমতা ছাড়ার পর পাঁচটি রাজনৈতিক সরকার দেশের জন্য কিছু করতে পারেনি বলে মন্তব্য করেন সাবেক এই সেনা প্রধান।  তিনি বলেন, ‘২৫ বছর বারবার দুটি দল ক্ষমতায় ছিল। জনগণকে কোনো কিছুই দিতে পারেনি। অন্যায়, অবিচার করেছে। জাতীয় পার্টি এত অত্যাচারের মধ্যেও ক্ষমতায় যেতে প্রস্তুত।’

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top