হারিয়াখালী থেকে ৯০ লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার

Sri-Lanka-2.jpg

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ
টেকনাফের সাবরাং হারিয়াখালী থেকে ৯০ লক্ষ টাকা মুল্যের ৩০ হাজার পিস ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করেছে। তবে ইয়াবা পাচারকারী অন্ধকারের সুযোগে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে। উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে। যা পরবর্তীতে উর্ধতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে।
টেকনাফ-২ বিজিবির পরিচালক অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ আছাদুদ-জামান চৌধুরী ১৮ মার্চ জানান ‘১৭ মার্চ সন্ধ্যায় ২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ শাহপরীরদ্বীপ বিওপির সুবেদার মোঃ আব্দুল জলিলের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টহল দল হারিয়াখালী লবণ মাঠ এলাকায় নিয়মিত টহলে গমন করে। অতঃপর বিশ্বস্থ গোয়েন্দা তথ্যের মাধ্যমে জানতে পারে উক্ত এলাকা দিয়ে একটি ইয়াবার চালান মায়ানমার হতে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে টহল দল বর্ণিত এলাকায় ওৎ পেতে থাকে। পরবর্তীতে রাত সাড়ে ১০টায় একজন ব্যক্তিকে একটি ব্যাগ হাতে করে লবন মাঠ দিয়ে আসতে দেখে সন্দেহ হওয়ায় টহল দল তাকে চ্যালেঞ্জ করে। টহল দলের আকষ্মিক উপস্থিতিতে ইয়াবা চোরাকারবারী পার্শ্ববর্তী গ্রামে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে টহল দল ইয়াবা চোরাকারবারীর পিছনে ধাওয়া করে। এক পর্যায়ে ইয়াবা পাচারকারী তার হাতে থাকা ব্যাগটি ফেলে অন্ধকারের সুযোগ নিয়ে দ্রæত দৌড়ে পার্শ্ববর্তী গ্রামে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে ইয়াবা পাচারকারী কর্তৃক ফেলে যাওয়া ব্যাগটি তল্লাশী করে ৯০ লক্ষ টাকা মূল্যমানের ৩০ হাজার পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে। যা পরবর্তীতে উর্ধতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে’।

আপনার মন্তব্য লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Top