ব্যাচেলর পয়েন্ট যে কারণে নোয়াখালীতে

f6f0d1252bfe2659f5ca0edb0d2414d6-5fad1a6ec6309.jpg

‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’–এর শিল্পীরা এখন নোয়াখালীতে আছেন।

‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’–এর শিল্পীরা এখন নোয়াখালীতে আছেন।ছবি: ফেসবুক

নাটকের গল্পে জিয়াউল হক পলাশের মা নোয়াখালীর একটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। এই এলাকার জাকির, রতন, অন্তরা চরিত্রগুলো আগে পর্দায় না দেখালেও তারা নাটকটির দর্শকদের কাছে পরিচিত নাম। সেই চরিত্রগুলোর দৃশ্য ধারণ করতেই পুরো ইউনিট নিয়ে নির্মাতা কাজল আরেফিন এখন নোয়াখালী। সেখান থেকে তিনি জানান, এ নাটকের বেশ কিছু চরিত্র আছে, যারা মূলত নোয়াখালী অঞ্চলের। দর্শকেরা সেভাবে তাদের দেখেন। এত দিন পর্দায় সেসব চরিত্র দেখা যায়নি। এখন থেকে দেখবেন। আগামী পর্বগুলো এসব চরিত্র পর্দায়ও দেখা যাবে।
নাটকের বেশ কিছু চরিত্র আছে, যারা মূলত নোয়াখালী অঞ্চলের।

নাটকের বেশ কিছু চরিত্র আছে, যারা মূলত নোয়াখালী অঞ্চলের।  ছবি:সংগৃহীত

নাটকের গল্পে কাবিলা তার বন্ধু হাবু, শুভসহ তাদের মেসের সবাইকে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে আসে। গ্রামে এসে বিভিন্ন ঘটনার মুখোমুখি হয় ব্যাচেলর পয়েন্টের সদস্যরা। নাটকের আগামী পর্বে দেখানো হবে এসব দৃশ্য।

‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ নাটকের অন্যতম একটি চরিত্র রোকেয়া। যার বাড়ি নোয়াখালী। সেখানে থেকেই ফোনে কথা বলেন কাবিলার সঙ্গে। মোবাইলেই প্রেম করেন কাবিলা ও রোকেয়া। মজার বিষয় হচ্ছে, এই রোকেয়া চরিত্রটি সরাসরি পর্দায় দেখা যায়নি। নাটকের একটি সূত্র থেকে জানা যায় আগামী পর্বে দেখা হওয়ার সম্ভাবনা আছে রোকেয়ার। এই চরিত্রে কে অভিনয় করছেন জানতে চাইলে নির্মাতা বলেন, ‘রোকেয়া চরিত্র নিয়ে এখনই কিছু বলতে চাই না। আমি চাই নাটকের পর্ব দেখে দর্শক জানুক রোকেয়া চরিত্রে কে অভিনয় করছেন। কত পর্বে রোকেয়াকে দেখা যাবে, সেটাও দর্শক নাটকের পর্বগুলো দেখে জানুক। দর্শক রোকেয়া চরিত্রের জন্য অপেক্ষা করবে এটাই আমাদের চাওয়া।’

‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ ২০১৮ সালে প্রথম প্রচারিত হয় চ্যানেল নাইনে

‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ ২০১৮ সালে প্রথম প্রচারিত হয় চ্যানেল নাইনে ছবি: ফেসবুক থেকে।

নাটকের গল্পে কখনো রোকেয়া কাবিলাকে ইনস্টাগ্রামে ব্লক করে, কখনো রোকেয়া অন্য কারও সঙ্গে ঘোরে, রোকেয়ার ইংরেজি বলা নিয়ে সন্দেহ করে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়ে কাবিলা। কারণ রোকেয়ার ইংরেজি জানার কথা নয়। নিশ্চিত কোনো ছেলের কাছ থেকে সে শিখেছে। প্রেমিক প্রেমিকার মান–অভিমান নিয়ে মোবাইল ফোনে ঘটতে থাকে মজার মজার ঘটনা। কাবিলার সঙ্গে রোকেয়াকে দেখা গেছে শুধুই ফোনে আলাপ করতে। এবার সেই কাবিলা নোয়াখালীতে যাওয়ায় তাকে ঘিরে ধরেন ভক্তরা। তিনিও এই এলাকার সন্তান। এই সময় অনেক ভক্ত রোকেয়াকে দেখতে চান।

অভিনেতা পলাশ জানান, রোকেয়াকে দেখতেই তারা কাবিলা চরিত্রের বন্ধুদের নিয়ে নোয়াখালীতে এসেছে। এসে জানতে পারে, রোকেয়া পারিবারিক বিভিন্ন ঘটনার জন্য দেখা করতে পারছে না। তিনি বলেন, রোকেয়া চরিত্রটির সঙ্গে কেন দেখা হচ্ছে না, এটা বহুবার দর্শক জানতে চেয়েছেন। এবারের গল্পে এলাকায় এসেছি রোকেয়ার সঙ্গে দেখা করার জন্য। কিন্তু দেখা হবে কি হবে না, এটা এখনই বলা যাবে না। এটা দর্শকেদের জন্য সারপ্রাইজ।

জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’–এর শিল্পীরা এখন নোয়াখালীতে আছেন।

জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’–এর শিল্পীরা এখন নোয়াখালীতে আছেন। ছবি:সংগৃহীত

নোয়াখালীতে শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে কাজল আরেফিন বলেন, ‘ঢাকায় আমরা নাটকের জন্য অনেক প্রশংসা পাই। সেসব প্রশংসার চেয়েও বেশি অভিভূত হয়েছি নোয়াখালীর এই গ্রামে এসে। এই গ্রামের প্রতিটি ঘরে ঘরে মানুষ “ব্যাচেলর পয়েন্ট” নাটক দেখেন। এখানকার মানুষ এই নাটকের চরিত্রগুলোর সঙ্গে পরিচিত।’

২০১৮ সালে ব্যাচেলর পয়েন্ট নাটকটির প্রথম পর্বের প্রচার শুরু হয়। নাটকটির বিভিন্ন সময় চরিত্র এবং গল্প পরিবর্তন হয়েছে। এখন নাটকটির তৃতীয় সিজন প্রচার হচ্ছে। এখানে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন মারজু্ক রাসেল, সুমন পাটোয়ারী, মিশু সাব্বির, চাষী ইসলাম প্রমুখ।

শুটিং দেখতে আসা দর্শকদের একাংশ

শুটিং দেখতে আসা দর্শকদের একাংশ ছবি: সংগৃহীত

আপনার মন্তব্য লিখুন